কালকিনিতে যৌতুকের দাবিতে ভাবির মাথা ফাটিয়েছে দেবর

এইচ এম মিলন, কালকিনি প্রতিনিধি: মাদারীপুরের কালকিনিতে যৌতুকের দাবিতে রোজিনা বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে মাথা ফাঁটিয়ে দিয়েছে তার পাষান্ড দেবর।

রবিবার রাতে ওই গৃহবধুকে গুরুতর আহত অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছেন ভুক্তভোগীর পরিবার। এ মারধরের ঘটনায় কোর্টে একটি মামলার প্রস্ততি চলছে। আজ সোমবার এ বিষয় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার গোপালপুর এলাকার মেলকাই গ্রামের জয়নাল খানের মেয়ে রোজিনা বেগমের জেলা সদরের ঘটমাঝি এলাকার গইদী গ্রামের মান্নান খানের ছেলে মনির খানের সাথে প্রায় ১৫ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে রোজিনা বেগমের স্বামী মনির খান ও দেবর অমর খানসহ শশুর বাড়ির লোকজন মিলে যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানুষিকভাবে নির্যাতন করে আসছে।

এর সুত্র ধরে তার দেবর যৌতুক লোভী অমর খান রবিবার বিকালে গৃহবধু রোজিনা বেগমকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তার মাথা ফাঁটিয়ে দেয়। এতে করে রোজিনা বেগম গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে গৃহবধুর পরিবারের লোকজন তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেন। পরে তার অবস্থা অবনতি হলে রাতে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ মারধরের ঘটনায় ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে মাদারীপুর কোর্টে মামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে অভিযোগে জানা যায়।

গৃহবধুর ভাই শহিদ বলেন, আমার বোনকে বিয়ে দেয়ার পর থেকে যৌতুকের জন্য একের পর এক শারীরিক ও মানুষিকভাবে নির্যাতন করে আসছে তার শ্বশুর বাড়ির পরিবার।

এ ব্যাপারে গৃহবধুর স্বামী মনির খান বলেন, আমার ভাই অমর আমার স্ত্রীর মাথা ফাটিয়েছে। এটা সত্য কথা। তবে কি কারনে ফাটিয়েছে বলতে পারবোনা।