লালমনিরহাটে কিশোরীর রহস্যজনক মৃত্যু

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: প্রেম সংক্রান্ত ঘটনায় বাবা মায়ের সাথে ঝগড়ার পরে এক কিশোরীর রহস্য জনক মৃত্যু হয়েছে। আর এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা এ নিয়ে শুরু হয়েছে ধ্রম্যজাল। আত্মহত্যা করেছে বলে মেয়েটির পরিবার দাবি করলেও এলাকাবাসী বলছে ভিন্ন কথা। আর ময়নাতদন্তের সূরতাহাল রিপোর্টের অপেক্ষায় থানা পুলিশ।

রবিবার ২৭ আগষ্ট সন্ধায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাট বাবুরটারী গ্রামে কোকিলেশ্বর হেদলের মেয়ে রাধিকা রানী কোকিলার (১৫) এ রহস্য জনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাধিকা দীর্ঘ দিন লালমনিরহাট শহরের একটি বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করত। সেখানে এক ছেলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠায় বাসার মালিক কিছু দিন আগে তাকে তার বাড়িতে পাঠান। সেই থেকে রাধিকা ওই ছেলেকে বিয়ের জন্য তার বাড়িতে চাপ দিয়ে আসছিল। কিন্তু তার পরিবার বাল্য বিয়ে দিতে অসম্মতি জানায়, এনিয়ে প্রায় বাকবিতন্ডা হত তার পরিবারের সাথে।

গত ২৭ আগস্ট রোববার বিকেলেও বাবা মেয়ের মাঝে বেশ বাকবিতন্ডা হয়। এতে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। এরপরে কোন এক সময় মেয়েটির মৃত্যু হয়। সন্ধ্যার পর মেয়েটির পরিবার প্রতিবেশীদের মাঝে প্রকাশ করে রাধিকা অত্মহত্যা করেছে। রাতেই তাড়াহুড়ো করে তাকে শেষকৃত্য করার প্রস্তুতি নিলে স্থানীয়দের খবরে থানা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেশ্বর রায় সাংবাদিককে জানান, রাধিকার মৃত্যুটা রহস্য জনক হওয়ায় মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। মর্গের রিপোর্ট এলে তার মৃত্যুর কারন জানা যাবে। তবে এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

আরআই