ভণ্ডবাবার সেই সুন্দরীর গোপন ডায়েরির সন্ধান

নিউজ ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বরঃ

পুলিশ তদন্ত করতে গিয়ে সম্প্রতি হানিপ্রীতের এক গোপন ডায়েরির সন্ধান পেয়েছে। সেই ডায়েরিতে প্রেমিকের জন্য শায়েরি লিখেছিল হানিপ্রীত। নিজের আশ্রমেরই দুই সাধ্বীকে ধর্ষণ করায় আপাতত ২০ বছরের জন্য কারাগারে ডেরা সচ্চা সওদার প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিংহ।

কিন্তু তাও একের পরে এক রঙিন তথ্য ওঠে আসছে তার সম্পর্কে। এবারে তার দত্তক নেয়া মেয়ে হানিপ্রীতের গোপন প্রেমের কথা প্রকাশ্যে এল। জানা গেছে, হানিপ্রীতের এক প্রেমিক ছিল, যার নাম আসিফ মহম্মদ।

ডেরা সচ্চা সওদার বাইরে হানিপ্রীত আসিফ মহম্মদের সঙ্গে বাইকে ঘোরাফেরা করত। রাম রহিমের কীর্তি সামনে আসার পরে হানিপ্রীতের এই প্রেমিক নিজেই সোশ্যাল মিডিয়াতে জানান, হানিপ্রীতের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল ধর্ষক বাবার। এ নিয়ে বহুবার হানিপ্রীতের সঙ্গে ঝগড়াও হয়েছিল তার। কিন্তু এবার হানিপ্রীতের এই প্রেমিকের ব্যাপারেই ওঠে আসছে নতুন তথ্য।

এক হিন্দি সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, হানিপ্রীতের এই প্রেমিকের আসল নাম আসিফ নয়। ডেরা সচ্চা সওদার আশপাশ এবং পাঁচকুলার লোকজন কেউই এই আসিফের নাম বলতে পারেননি। তিনি কোথায় থাকেন, কী করেন সবটাই এলাকার বাসিন্দাদের কাছেও অজানা।

পুলিশ তদন্ত করতে গিয়ে সম্প্রতি হানিপ্রীতের এক গোপন ডায়েরি খুঁজে পেয়েছে। সেই ডায়েরিতে প্রেমিকের জন্য শায়েরি লিখেছিল হানিপ্রীত। এই ডায়েরিকেই সূত্র করে পুলিশ জানতে পারে যে, এই আসিফ মহম্মদের আসল নাম হল আদিল মুরাদ। আদিল মুরাদ পাকিস্তানের এক অভিনেতা বলে জানা গেছে।

পাকিস্তানের নাম করা অভিনেতা ওয়াহিদ মুরাদের ছেলে হলেন আদিল। আদিল পাকিস্তানের সিনেমা ও সিরিয়াল দুটোতেই কাজ করেছেন। কিন্তু তাহলে কে এই আসিফ মহম্মদ। কেনই বা আদিল মুরাদকে আসিফ মহম্মদ বলা হচ্ছিল? সত্যিই কি হানিপ্রীতের সঙ্গে আদিলের কোনো সম্পর্ক ছিল কি-না ইত্যাদি নিয়ে এখন রহস্য দানা বাঁধছে।