অভিজিৎ রায় হত্যা মামলা: ১৬ অক্টোবর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল

সময়ের কণ্ঠস্বর ~  বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা অভিজিৎ রায় হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের ধার্য দিন ছিল। কিন্তু তদন্ত সংস্থা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) প্রতিবেদন দাখিল করেনি। বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবী আগামী ১৬ অক্টোবর মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলে দিন ঠিক করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে বইমেলা থেকে বের হওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন এলাকায় অভিজিৎ রায়কে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃৃত্তরা।

ফাইল ছবি

এ সময় অভিজিতের স্ত্রী বন্যাকেও কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। ঘটনার পর অভিজিতের বাবা অধ্যাপক অজয় রায় বাদী হয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করেন।

হত্যাকাণ্ডের তদন্তে পুলিশকে সহায়তা করতে ঢাকায় আসে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই)। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের আটজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ছাড়া চট্টগ্রাম থেকে আটক ব্লগার শফিউর রহমান ফারাবী এবং অনন্ত বিজয় দাস খুনের আসামি মান্নান ইয়াহিয়া ওরফে মান্নান রাহীর বিরুদ্ধেও অভিজিৎ হত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ আনা হয়েছে।

অভিজিৎ ‘মুক্তমনা’ ব্লগের সম্পাদক ও লেখক। ‘কুসংস্কার ও মৌলবাদের বিরুদ্ধে’ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৭ সালে জাহানারা ইমাম পদক পায় মুক্তমনা। তিনি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক অধ্যাপক অজয় রায়ের ছেলে। রাফিদা আহমেদ লেখালেখি করেন বন্যা আহমেদ নামে। অভিজিৎ রায়ের প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে আলো হাতে চলিয়াছে আঁধারের যাত্রী, মহাবিশ্বে প্রাণ ও বুদ্ধিমত্তার খোঁজে, স্বতন্ত্র ভাবনা: মুক্তচিন্তা ও বুদ্ধির মুক্তি, বিশ্বাসের ভাইরাস।