আগস্ট মাসে লালমনিরহাটে ২০ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: চলতি বছরের আগস্ট মাসে লালমনিরহাটের ৫ উপজেলায় আত্মহত্যা ৩ জন, খুন ২ জন, সড়ক দুর্ঘটনা ৪ জন, বিদ্যুত স্পৃষ্ঠে ১ জন ও বন্যার পানিতে ডুবে ১০ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে পুরুষ ১০ জন, মহিলা ৫ জন ও শিশু ৫ জন, মোট অস্বাভাবিক মৃত্যুর সংখ্যা ২০ জন। তম্মধ্যে লালমনিরহাট সদর উপজেলায় ৯ জন, আদিতমারীতে ৩ জন, কালীগঞ্জে ২ জন, হাতীবান্ধায় ৩ জন ও পাটগ্রামে ৩ জন।

৩ আগষ্ট (বৃহস্পতিবার):
পাটগ্রাম পৌরসভার হক ফিলিং স্টেশন এলাকায় ট্রলির ধাক্কায় মটর সাইকেল আরোহী কলেজ শিক্ষক গণেশ চন্দ্র রায়( কাকুয়া) (৫৬) সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। নিহত গণেশ চন্দ্র রায় হাতীবাদ্ধা আলীমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক ও পাটগ্রাম পৌরসভার কোটতলী এলাকায় বাসিন্দা।

এছাড়াও একইদিনে,
পাটগ্রামের বাউড়া ইউনিয়নের মেছেরহাট এলাকায় গরু বোঝাই ভটভটি উল্টে রফিকুল ইসলাম (২৮) নামে এক গরু ব্যবসায়ী গুরুতর আহত অবস্থায় হাতীবাদ্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়। মৃত্যু রফিকুল ইসলাম ফকিরপাড়া ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ কুদ্দুস মিয়ার পুত্র।

একইদিনে,
হাতীবাদ্ধা উপজেলার কারবালা দিঘি নামক স্থানে রাস্তা পারাপারের সময় বাস চাপায় শিশু আলিফ (৮) ঘটনাস্তলে মারা যায়। নিহত শিশু আলিফ হাতীবাদ্ধা উপজেলার গোতামারী ইউনিয়নের আমঝোল গ্রামের হোসেন আলীর পুত্র।

একইদিনে,
লালমনিরহাট সদর উপজেলার রাজপুর ইউনিয়নের মারাইরহাট জগতদার তিস্তা নদীর স্পার বাঁধের পার্শ্বে তৌহিদুল ইসলাম শুভ (১৬) নামের এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু দেহ উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ। গত ২১ জুলাই তৌহিদুল ইসলাম শুভ (১৬) নদীতে গোসল করতে নামে, এক পর্যায়ে সে গভীর পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হয়। ফায়ার সার্ভিস ২ ইউনিট ২ দিন ব্যাপী খোঁজাখোজির পরেও উদ্ধার করতে পারেনি। পিতা শত্তকত আলী ২৫ জুলাই ৫ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করেন।

৫ আগষ্ট (শনিবার):
ঢাকা- বুড়ীমারী মহাসড়কে হাতীবাদ্ধা উপজেলার সুচনা সিনেমা হল এলাকায় মটর সাইকেল দুর্ঘটনায় বিদ্যুত লাইনম্যান আবু তাহের গুরুতর আহত হয়। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৫ দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানে তার মৃত্যু হয়। আবু তাহের বাংলাদেশ বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড হাতীবাদ্ধা অফিসের বিদ্যুত লাইনম্যান ও নোয়াখালী জেলার সদর উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র।

১০ আগষ্ট (বৃহস্পতিবার):
কালীগঞ্জ উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের কাশিরাম গ্রামের গৃহবধু কৈলাশ চন্দ্রের স্ত্রী বিউটি রাণী (৩৭) বিদ্যুত স্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়। জানা যায় বৈদ্যুতিক চুলায় রান্না করার জণ্য সংযোগ দিতে গিয়ে বিদ্যুত স্পৃস্ট হয়ে ঘটনা স্থলে মৃত্যু বরণ করেন। নিহত বিউটি রাণী করিম উদ্দিন পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক কৈলাশ চন্দ্রের স্ত্রী।

১২ আগষ্ট (শনিবার):
আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের চওড়াটারী এলাকার আলতাব আলীর শিশুপুত্র মোস্তফা (৬) বাড়ির পার্শ্বে পানি ভর্তি নর্দমায় পরে ডুবে গিয়ে মারা যায়। তার মৃত্যুতে ঐ পরিবারের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

১৩ আগষ্ট (রবিবার):
লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়ান পূর্ব বরুয়া গ্রামের ধরলা নদীতে কলার ভেলা ডুবে গিয়ে একই পরিবারের ৪ জন মারা যায়। এরা হলেন মোজাম্মেল হকের শিশু পুত্র নাদিম (৫) সহ একই পরিবারের আঃ হামিদ(৩৮) আসমা বেগম (৩৩) মোজাম উদ্দিন (৪৫)। জানা যায়, বসত বাড়ীতে বন্যার পানি উঠলে কলার ভেলায় নিরাপদ স্থানে যাচ্ছিল। সেসময় পানির স্রোতে ভেলা ডুবে তাদের মৃত্যু হয়।

১৪ আগষ্ট (সোমবার):
লালমনিরহাট পৌরসভার খুটমারা এলাকার বাসিন্দা মাদ্রাসা শিক্ষক নুরল হক মুন্সি (৭০) ঝাকি জাল দিয়ে নালায় মাছ ধরতে গিয়ে অসাবধানতা বসত নালার গভীর পানিতে ডুবে যায়। ফায়ার সার্ভিস এর লোকজন অনুসন্ধান চালিয়ে লাশ উদ্দার করে। নিহত নুরল হক মুন্সি আদিতমারী উপজেলার ভোলাবাড়ী দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক।

১৬ আগষ্ট (বুধবার):
গভীর রাতে লালমনিরহাট সদর উপজেলার রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের তিস্তা শাখার নৈশ প্রহরী আব্দুর রশিদ (৬০) কে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত আব্দুর রশিদ সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের রতিপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি একজন বীরমুক্তিযোদ্ধা।

এছাড়াও ঐদিনে
আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের তালুক হরিদাস গ্রামের জয়নাল আবেদিনের শিশুপুত্র তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র মজিদুল ইসলাম (৯) বিলের নৌকা থেকে পড়ে পানিতে ডুবে মারা যায়। জানা যায়, ফরহাদ হোসেনের মৎস্য খামারের বিলে নৌকায় চড়ে শিশু মজিদুল খেলা করছিলে। এক পর্যায় গভীর পানিতে পরে ডুবে গিয়ে মারা যায়।

১৭ আগষ্ট (বৃহস্পতিবার):
লালমনিরহাট সদর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের নামাটারী গ্রামের মোক্তার আলীর পুত্র সাজু মিয়া ভারত থেকে গরু আনতে গিয়ে গিরিধারী নদীর স্রোতে গভীর পানিতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন ঐ নদী থেকে সাজু মিয়ার মৃত্যু দেহ উদ্ধার করা হয়।

২১ আগষ্ট (সোমবার):
লালমনিরহাট পৌরসভায় বিডি,আর হাট এলাকায় মতিয়ার রহমানের কণ্যা রোকসানা আক্তার (১৯) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। জানা যায় রোকসানা আক্তার রিতুর মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করে। রোকসানা আক্তার মজিদা খাতুন সরকারী মহিলা কলেজ থেকে এবারে এইচ,এস,সি পরীক্ষায় পাশ করে।

২৫ আগষ্ট (শুক্রবার):
পাটগ্রাম পৌরসভায় সাহেব ডাঙ্গা এলাকার মমিনুর রহমানের স্ত্রী মোর্শেদা আক্তার ২০ আগষ্ট স্বামী ও শাশুড়ীর নির্মম নিযার্তনে গুরুতর আহত হলে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ৫ দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় মোর্শেদার স্বামী মমিনুর রহমানকে পুলিশ গেপ্তার করেছে।

২৬ আগষ্ট (শনিবার):
হাতীবাদ্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়ানের মধ্য গড্ডিমারী গ্রামের আনেয়ার হোসেনের শিশু কণ্যা জান্নাতী আক্তার (২) বাড়ির উঠানে খাল ভর্তি বন্যার পানিতে পড়ে ডুবে গিয়ে মারা যায়। জানা যায়, জান্নাতীর মা আনোয়ারা বেগম ত্রাণ নেয়ার জন্য সন্তানকে বাড়ীতে রেখে মিলন বাজার মাদ্রাসায় গিয়েছিল।

২৮ আগষ্ট (সোমবার):
আদিতমারী উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়ানের চন্দনপাট বাবুরটারী গ্রামের কুকিলেশ্বর বর্মনের কণ্যা রাধিকা রাণী (কোকিলা) ১৫ নামে এক কিশোরীর রহস্যাজনক মৃত্যু হয়েছে। আদিতমারী থানা পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে আদিতমারী থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

৩০ আগষ্ট (বুধবার):
কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা রেলষ্টেশনের অদূরে কাজির হাট রেল গেটে চলন্ত ট্রেনে পড়ে অজ্ঞাত এক যুবক (২৫) আত্মহত্যা করেছে। ঐ দিন রাত্রী ৯ টার দিকে লালমনিরহাট থেকে ছেড়ে আসা বুড়িমারীগামী চলন্ত ট্রেনের নিচে ঐ যুবক স্বেচ্ছায় আত্মহত্যা করেছে বলে স্থানীয় সুত্রে জানা যায়। অজ্ঞাত যুবকের অনুমানিক বয়স (২৫) বৎসর হবে।

জাতীয় দৈনিক, আঞ্চলিক পত্রিকা ও অনলাইন নিউজ পোর্টালের রিপোর্টের উপর ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন প্রস্তুুত করা হয়েছে।