উদ্দেশ্যমূলকভাবে চাল নিয়ে চালবাজি হচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী

সময়ের কণ্ঠস্বর- খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেছেন, চাল নিয়ে রাজনীতি চলছে, চাল নিয়ে সমস্ত দেশকে একটা বিভ্রাটের মধ্যে ফেলার চেষ্টা করা হচ্ছে। উদ্দেশ্যমূলকভাবে চাল নিয়ে চালবাজি হচ্ছে, চাল নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ও ভীতি সৃষ্টির চেষ্টা করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে চালের দাম নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে খাদ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ। এর পরও চালের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। চালের দাম নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। আড়তদার ও মজুদদাররা কারসাজি করে দাম বাড়াচ্ছেন।’

এক শ্রেণির ব্যবসায়ী ও মিল মালিকরা চাল নিয়ে এই চালবাজি করছেন অভিযোগ করে তিনি বলেন, আমরা চালবাজি ও ষড়যন্ত্রের মধ্যে আছি। কারণ বাংলাদেশেই এক কোটি টন চাল আছে, তারপরেও এই অবস্থা। আমি মজুতদার, আড়তদার, মিল মালিকসহ সবার প্রতি আমি আহ্বান জানাব- এখনই ভালো হয়ে যান, সময় আছে। এখনও সময় আছে ভালো হয়ে যান। আপনারা যেভাবে (চালের) দাম বাড়াচ্ছেন, যেভাবে সিন্ডিকেট করে দেশে চালবাজি শুরু করেছেন, চাল নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছেন, একটা বিভ্রাট সৃষ্টির চেষ্টা করছেন তা কোনো অবস্থাতেই বরদাস্ত করা হবে না। এখনই শেষ সুযোগ আপনাদের ভালো হয়ে যান।

সরকারি খাদ্যগুদামে খাদ্য মজুদের পরিমাণ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের খাদ্যগুদামগুলোতে যথেষ্ট পরিমাণে খাদ্য মজুদ আছে। তবে কী পরিমাণ আছে তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করে তিনি।

আরআই