ছাত্রীকে ‘ধর্ষণের চেষ্টা’, শিক্ষক গ্রেপ্তার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি- ঝালকাঠিতে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় পাশের আরেকটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার মো. শহিদুল ইসলাম (৫০) সদর উপজেলার চাঁনবরু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

শনিবার ভোর রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পালরদী গ্রামে থেকে গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গ্রেপ্তারকৃত শিক্ষককে শনিবার সকালে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মামলার বরাদ দিয়ে তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার উপপরিদর্শক সরোয়ার হোসেন জানান, ঝালকাঠি সদর উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়াতেন পার্শ্ববর্তী চাঁনবরু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল ইসলাম। পড়ানোর সুযোগে প্রায়ই তিনি ওই ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন করতেন। গত ১৮ আগস্ট সকালে ছাত্রীটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন শিক্ষক শহিদুল। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেলে ওই ছাত্রীটি ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা পায়।

এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা গত ৮ সেপ্টেম্বর ঝালকাঠি সদর থানায় মৌখিক অভিযোগ করে। বিষয়টি তদন্ত করতে গিয়ে প্রাথমিক ভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায় বলে জানান সরোয়ার হোসেন।

সরোয়ার হোসেন আরো বলেন, গত ১৩ সেপ্টেম্বর ছাত্রীটির বাবার লিখিত অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়। মামলার পর থেকে আসামি শিক্ষক শহিদুল পলাতক ছিলেন। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোরে পালর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

আরআই