ভূয়া কাবিন দিয়ে সাবেক শিক্ষককে স্বামী দাবি এক সন্তানের জননীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল-  বরিশাল সদর উপজেলার রায়পাশা পড়াপুরের ভুয়া কাবিন নামা তৈরী করে সাবেক শিক্ষককে স্বামী দাবি করেছে একই এলাকার এক সন্তানের জননী মোসাঃ রুবি।

গত ১৬ই সেপ্টেম্বর সোলনা গ্রামে সোহেল মিয়াকে স্বামী দাবি করে তার বাসায় ওঠে। এ নিয়ে তুলকালাম কান্ড ঘটলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় বিমানবন্দর থানা পুলিশ।

সোলনা গ্রামের জাহিদ হোসেনের ছেলে সোহেল মিয়া জানায়, রুবিকে এক সময় তিনি শিক্ষক হিসাবে পড়াইতেন। সেই থেকে রুবির সাথে তার সুপরিচয় রয়েছে। তবে তার সাথে বিবাহ বা কাবিন অথবা কোন শারীরিক সম্পর্কের কোন ঘটনা কখনো ঘটেনি।

জানাযায়, প্রায় ৩বছর পূর্বে এক সন্তানের জননী সোলনা গ্রামের আবদুর রহমান ওরফে রিফুজি রহমানের মেয়ে রুবির সাথে তার স্বামীর ছাড়াছাড়ি হয়। এর পরে রুবি বেপরোয়া হয়। স্বামী থাকা কালীন অবস্থায়ও রুবির সাথে এনিয়ে একাধিকবার দাম্পত্য কলহ হয়। এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।

স্বামী দাবি করে সোহেলের ঘরে ওঠার পরে রুবির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো তাদের বিবাহ হয়েছে কি না। এ ছাড়াও তাদের ভিতরে গত ৩ বছরে কোন শারীরিক সম্পর্ক ছিলো কি না। শারীরিক সম্পর্কের কথা অস্বিকার করে তিনি বলেন, তাদের কাবিন হয়েছিলো।

এদিকে ১৪নং ওয়ার্ড কাজীর অফিসের একটি কাবিন নামায় দেখা যায় কাজীর কোন স্বাক্ষর নেই। ছেলে দাবি করেছে তার স্বাক্ষরও জাল করা হয়েছে। তবে এবিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন নিকাহ রেজিস্ট্রার। রুবিকে কাগজপত্র নিয়ে যেতে বলেছে পুলিশ।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি