রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে দ্রুত শক্তিশালী পদক্ষেপ চান ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- মিয়ানমারে রাখাইনে দেশটির সেনাবাহিনীর হাতে নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গা মুসলিমদের সংকট নিরসনে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত শক্তিশালী পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প।

বুধবার নিরাপত্তা পরিষদে জাতিসংঘ শান্তি মিশনের সংস্কার বিষয়ক এক বৈঠকে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ট্রাম্পের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন বলে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে।

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রম নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বক্তব্যে পেন্স মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রতি অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, এটা করা না হলে ‘ঘৃণা ও বিশৃঙ্খলার বীজ বপন করা হবে, যা প্রজন্মের পর প্রজন্ম ওই অঞ্চলকে গ্রাস করতে পারে এবং আমাদের সবার জন্যই হুমকি হয়ে উঠতে পারে।’

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রয়টার্সকে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, জাতিসংঘের সংস্কার বিষয়ে সোমবার এক বৈঠকে তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরলেও ট্রাম্প এ নিয়ে কোনো কথা বলেননি।

তবে রয়টার্সকে হোয়াইট হাউসের একজন কর্মকর্তা বলেন, ট্রাম্প রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আগ্রহী। কেউ তার কাছে বিষয়টি তুলে ধরলে তিনি কথা বলবেন। মঙ্গলবার ট্রাম্প জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ৪২ মিনিট ভাষণ দিলেও তাতে রোহিঙ্গা প্রসঙ্গ ছিল না। অবশ্য মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞের বিরুদ্ধে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। তিনি সুচির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি