জীবন্ত কবর দেয়া সেই মেয়েটি এখনো জীবিত!

নিউজ ডেস্ক,সময়ের কণ্ঠস্বরঃ

জীবন্ত কবর দেয়া মানুষ দুনিয়ায় আবার ফিরে এসেছে এমন ঘটনা একেবারেই বিরল। তবে এমন ঘটনার সাক্ষী এক নারী, যিনি
মৃত্যুর কাছ থেকেও ফিরে এসেছেন। স্বয়ং ভাল্লুক জীবন্ত কবর দিয়েছিল ওই নারীকে, আবার বেঁচেও গেছেন তিনি। এরকম ঘটনা শুনলে যে কারো গা ছমছম করবে।

সাইবেরিয়ার অধিবাসী নাতালিয়া প্রায়ই তার পোষা কুকুরটিকে নিয়ে জঙ্গলের দিকে হাঁটতে বের হতেন। ২০১৫ সালের মে মাসের এক বিকেলে বার্চ গাছের রস সংগ্রহ করতে একাই বেরিয়ে পড়েন। হঠাৎ সেদিন নাতালিয়াকে আক্রমণ করে বসে এক ভাল্লুক। থেঁতলে দেয় তার দুটি পা। এক পর্যায়ে হাতাহাতি চলে তাদের মধ্যে। কিন্তু ভাল্লুকের কাছে পরাজিত হয় নাতানিয়া।

অবশেষে অজ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি। কিন্তু নাতালিয়া এখনো যে বেঁচে আছে এটুকু হয়তো বুঝতে পেরেছিল ভাল্লুকটি। তাই নিজের খাওয়া সংগ্রহে রাখতে মাটিতে গর্ত খুঁড়ে নাতালিয়াকে দাফন করে দেয়। মারাত্মক আহত নাতালিয়ার জ্ঞান ফিরে এলেও তিনি বুঝতে পারছিলেন না যে, কী করা উচিত।

জঙ্গলের মধ্যে চিৎকার করে কাউকে ডেকেও লাভ হবে না। তাছাড়া চিৎকার-চেঁচামেচিতে যদি ভাল্লুকটিই ফিরে আসে, সেই ভয়েও চুপ করে পড়ে থাকেন তিনি। কবরের মাটি কিছুটা সরিয়ে বাতাস ঢোকার রাস্তা বের করে নেন শুধু। এভাবে কেটে যায় এক রাত।

পরদিন সেই জঙ্গলে শিকার করতে আসে একদল শিকারি। তারাই তাকে উদ্ধার করে। অন্যদিকে ভাল্লুকটি শিকারিদের হাতে বন্দি পড়ে। সেদিন শিকারিদের কারণেই নতুন জীবন ফিরে পায় নাতানিয়া। সূত্র : মেট্রো ডট কো ডট উইকে