ফরিদপুরে খোলা বাজারে চাল বিক্রিতে নেই প্রচারণা, চাউল আছে ক্রেতা নেই

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে আজ বৃহস্পতিবার সকাল নয়টা হতে খোলা বাজারে চাউল বিক্রি শুরু হয়েছে। সকাল নয়টা হতে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত সর্ব সাধারণের জন্য আগামী ১৫-১০-২০১৭ পর্যন্ত খোলা বাজারে চাউল পাওয়া যাবে।

জানা যায়, চরভদ্রাসনের তিনটি স্থানে চাউল বিক্রির কথা থাকলেও প্রথম দিনে দুটি স্থানে চাউল বিক্রি শুরু হয়েছে। তবে কোন প্রচারণা না থাকায় ও আতপ চাউল হওয়ায় ক্রেতা নেই বললেই চলে। সরেজমিনে বেলা এগারটার সময় চরভদ্রাসন বাজারের কামার পট্টির পাশে সুভাস চন্দ্র বিশ্বাসের দোকান ও ভাই ভাই মার্কেটের রাসেল জামানের দোকান ঘুরে দেখা যায় চাউল আছে কিন্তু কোন ক্রেতা নেই। সে সময় পর্যন্ত কোন চাউল বিক্রি হয়নি।

এ ব্যাপারে সুভাস জানান, আতপ চালের কারণে ক্রেতা নেই। তাছাড়া অনেকে এখনও জানে না চাউল বিক্রি শুরু হয়েছে। যদি আগে থেকে প্রচারের ব্যবস্থা থাকতো তাহলে কিছু ক্রেতা পাওয়া যেত।

এ ব্যাপারে চরভদ্রাসন খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এনামুল হক জানান, সরকারি কোন বরাদ্দ না থাকায় প্রচারের কোন ব্যাবস্থা করা যায়নি। এছাড়া ডিলাররা বলেছে আতপ চাউলের চাহিদা কম। সিদ্ধচাল হলে ক্রেতার অভাব থাকতো না। চরভদ্রাসন চাউল বাজারে চাল কিনতে খালশী ডাঙ্গী গ্রামের শফিকুলকে খোলা বাজারের চাউলের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, ত্রিশ টাকা মূল্যে চাউল দিব শুনছি কিন্তু আমরা তো জানি না কোথায় দিবে।

সম্প্রতি দেশে চাউলের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার গত শনিবার হতে সারা দেশে খোলা বাজারে চাউল বিক্রি শুরু করে। একজন ক্রেতা প্রতিদিন পাঁচ কেজি করে চাউল ক্রয় করতে পারবে এবং প্রতিদিন এক টন করে চাউল বিক্রি করতে পারবে একজন ডিলার।