আগৈলঝাড়ায় এখনও জমে উঠেনি পূজার বাজার : শেষ সময়ের আশায় ব্যবসায়ীরা

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি: শারদীয় দুর্গাপূজার আর মাত্র দুইদিন বাকি। আর তাই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে দেবী দুর্গার আগমণী বার্তা।

দুইদিন পরেই শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। কিন্তু পূজার আর দুইদিন বাকি থাকলেও বরিশালের আগৈলঝাড়ায় এখনও জমে উঠেনি পূজার বাজার। মার্কেট ও ফুটপাতের দোকানগুলোতে নতুন পোশাক, জুতা আর কসমেটিক্সের ব্যাপক সমারোহ থাকলেও ক্রেতা কম থাকায় দুশ্চিন্তায় পরেছে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

উপজেলা সদর বাজার, গৈলা বাজার, পয়সারহাট, সাহেবেরহাট, রাজিহার, বাশাইলসহ বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা যায় দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় খুবই সামান্য। এ বিষয়ে ব্যাবসায়ীরা বলেন, এখনও পুরোপুরি ভাবে আমাদের বেচাকেনা শুরু হয়নি। তবে শেষ সময়ে ক্রেতাদের ভিড় বাড়বে বলে আশা করছেন ব্যবসায়ীরা। এ বিক্রি চলবে মহাষ্ঠমী পর্যন্ত। এবারের বাজারে দেশী পোশাকের পাশাপাশি মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে ভারতীয় চ্যানেলে বহুল আলোচিত বিভিন্ন নামের থ্রি-পিস ও শাড়ি।

এবারের পূজাতে ভারতীয় শাড়ির পাশাপাশি ঢাকাই জামদানী শাড়িরও বেশ কদর দেখা দিয়েছে। পুরুষের পছন্দের তালিকায় এবারও শীর্ষে রয়েছে পাঞ্জাবি। বাচ্চাদের পছন্দের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন বাহারী ডিজাইনের জামা কাপড়। তবে ক্রেতা উপস্থিতি কম থাকলেও কিছু কিছু মার্কেটে নারী ক্রেতাদের ভিড় ছিল চোখে পরার মতো। ক্রেতাদের মন জোগাতে দোকানে দোকানে ঝুলানো হয়েছে বাহারী রং এর বিভিন্ন ডিজাইনের পোশাক, বাজারসহ দোকানে দোকানে করা হয়েছে চোখ ধাঁধানো আলোকসজ্জা।

ক্রেতাদের অভিযোগ, অন্যবারের তুলনায় এবার পোশাকের দাম বেশী নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। তবে এসব অভিযোগ যথার্থ নয় বলে দাবি করছেন ব্যবসায়ীরা।