রাম রহিমের আমার প্রতি কুদৃষ্টি ছিল: রাখি সাওয়ান্ত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক– ধর্ষণের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত ভারতের কথিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের বায়োপিকে পালিত কন্যা হানিপ্রীত ইনসানের চরিত্রে অভিনয় করছেন বলিউডের আইটেম গার্ল রাখি সাওয়ান্ত।

এই বায়োপিক সম্পর্কে জি নিউজকে এক সাক্ষাৎকার দেন রাখি। সেখানে তিনি দাবি করেন, তার প্রতি রাম রহিমের কুদৃষ্টি ছিল। হরিয়ানায় সিরসার ডেরার ভেতর ব্যক্তিগত গুহায় (গুফা) নেশাজাতীয় পানীয় খাইয়ে তাকে অচেতন করেছিলেন গুরমিত।

রাখি বলেন, ‘সাড়ে তিন বছর ধরে আমি রাম রহিম ও তাঁর পালিত কন্যা হানিপ্রীতকে জানি। তাঁদের সঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমার দেখাও হয়েছে। একবার আমি ডেরার ভেতর রাম রহিমের গুহায় (গুফা) গিয়েছিলাম। রাম রহিম তাঁর জন্মদিনে আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। আমি সেখানে বুঝতে পেরেছিলাম, রাম রহিমের সঙ্গে আমার এই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হানি ভালোভাবে দেখেননি। তাঁর ভয় ছিল, আমি হয়তো তাঁর প্রেমিককে বিয়ে করে ফেলব। সে সময় রাম রহিমের নারী অনুসারীদের নির্যাতন ও পুরুষ অনুসারীদের খোজা করার বিষয়টি জানা ছিল না। তবে তিনি সব সময় নারীবেষ্টিত থাকতেন।’

আপনি কেন রাম রহিম ও হানিপ্রীতকে নিয়ে সিনেমা করার পরিকল্পনা করলেন—এই প্রশ্নের জবাবে রাখি বলেন, ‘মুম্বাইতে একবার রাম রহিমের সঙ্গে দেখা করেছিলাম। সে সময় তিনি আমার কাজের খুব প্রশংসা করেছিলেন। তিনি আমাকে রাজ্যসভা নির্বাচনে টিকিট দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন।’

রাখি সাওয়ান্ত বলেন, ‘একবার আমি ডেরার ভেতর রাম রহিমের গুহায় (গুফা) গিয়েছিলাম। সেখানে আমাকে নেশাজাতীয় পানীয় খাওয়ানো হয়েছিল। অচেতন হয়ে পড়েছিলাম। আসলে আমার দিকে “বাবার” কুদৃষ্টি ছিল। এ ছাড়া রাম রহিমের কাছাকাছি যাওয়াটা হানিপ্রীত ভালো চোখে দেখেননি। হানি একবার আমাকে ছাড় দেওয়ার কথা বলেছিলেন। এখন বুঝেছি ওই ছাড় আসলে “কাস্টিং কাউচ”।’

রাম রহিম সম্পর্কে রাখি বলেন, ‘একবার রাম রহিম ও হানিপ্রীত আমাকে একটি হোটেলে ডেকেছিলেন। তাঁদের সিনেমায় অভিনয় করার সুযোগ দেওয়া কথা বলে হানি প্রায় সময় মেয়েদের হোটেল ডেকে নিতেন। সেখানে একই কক্ষে থাকতেন রাম রহিম ও হানি। আমি প্রসাধনকক্ষে বেশ কিছু জিনিস দেখেছি। আমার ধারণা, মেয়েদের সঙ্গে “খারাপ কাজে’ ওই সব ব্যবহার করতেন তিনি। রাম রহিম আমাকে ডেকে পাঠানোর প্রকৃত উদ্দেশ্য জেনে আমি ভয় পেয়েছিলাম। তিনি আমাকে মেরে ফেলতে পারেন—এই ভয়ে ছিলাম।’

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি