গফরগাঁওয়ে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

আব্দুল মান্নান পল্টন, ময়মনসিংহ ব্যুরো-  স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষর্ণের ঘটনায় মোঃ রবি মিয়া (৩৫) নামের এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে ময়মনসিংহের গফরগাঁও থানা পুলিশ।

মামলা সুত্রে জানা যায়, গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে গৃহবধূ রুমা আক্তার (১৯) তার স্বামীকে নিয়ে গফরগাঁও উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের কদম রসুলপুর গ্রামের বাপের বাড়ি যাচ্ছিলেন। এসময় রসুলপুর গ্রামের সাঈদ বেপারীর ছেলে আব্দুর রশিদ ও হযরত আলীর ছেলে রবি মিয়া তাদের পথরোধ করে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে।

গৃহবধূর স্বামীকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের অস্থায়ী কার্যালয়ের বারান্দার খুটির সাথে হাত-পা ও মুখ বেঁধে রেখে গৃহবধূ রুমা আক্তারকে পাশের মৎস খামারের পরিত্যক্ত একটি ঘরে আটকে রেখে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

পরে ৭ সেপ্টেম্বর ভোর বেলায় গৃহবধুর স্বামী তার স্ত্রীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে গিয়ে বিচার দাবী করে। চেয়ারম্যানের ডাকে ধর্ষকরা সাড়া না দেয়ায় ওই ইউপি চেয়ারম্যান ধর্ষিতাকে থানায় মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন। পরে ২৩ সেপ্টেম্বর রাতে ধর্ষিতা রুমা আক্তার বাদী হয়ে ২জনকে আসামী করে গফরগাঁও থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একে এম মাহবুবুল আলম বলেন, ধর্ষিতার দায়েরকৃত মামলায় অভিযুক্ত রবি মিয়াকে রবিবার রাতে গ্রেফতার করে সোমবার সকালে ময়মনসিংহ জেলা জজ আদালতে পাটানো হয়েছে। বাকী একজনকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি