SOMOYERKONTHOSOR

এবার বিচ্ছেদের বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন স্পর্শিয়াও

বিনোদন ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর: দাম্পত্য জীবনের দুই বছর না পেরোতেই ভেঙ্গে গেল মডেল ও অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়া এবং নির্মাতা রাফসান আহসানের সংসার। গত ২১ আগস্ট রাজধানীর মোহাম্মদপুরের একটি কাজী অফিসে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

তবে গণমাধ্যমে বিষয়টি প্রকাশ পায় সোমবার। স্পর্শিয়ার স্বামী রাফসান আহসানই গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন অর্চিতা স্পর্শিয়াও।

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রেমের বিয়ে ছিল না। হুট করেই ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর আমরা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিউ। এরপর এক বছর সংসার করেছি অর্থাৎ ২০১৬ সালের অক্টোবর পর্যন্ত। ২০১৬ সালের নভেম্বর থেকে আমি আলাদা থাকতে শুরু করি। আসলে আমাদের ডিভোর্স গত বছরই হয়েছে। আগস্টে আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহ বিচ্ছেদ হলো।’

বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত কেন নিলেন এমন প্রশ্নের জবাবে স্পর্শিয়া বলেন, ‘কোনো মেয়েই তার সংসার ভাঙতে চায় না। সবাই সংসার করতে চায়। আর বিচ্ছেদের জন্য অবশ্যই একাধিক কারণ রয়েছে। তবে আমি নির্ধারিত কোনো কারণ উল্লেখ করতে চাই না।’

এই অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘ব্যাপারটি শেষ হয়ে গেছে। তাই আমি চাই না, এটা নিয়ে এখন চুল টানাটানি হোক। অথবা আমার সঙ্গে রাফসানের দেখা হলে যাতে কুশল বিনিময় করতে পারি বা ওর দিকে কেউ আঙুল তুলে কথা বলুক—এসব আমি মোটেও চাই না। ও আমাকে সম্মান করে, আমিও তাকে সম্মান করি। এটা বজায় থাকুক।’

স্পর্শিয়া বলেন, ‘আমি আসলে বাধ্য হয়েই সিদ্ধান্তটা নিয়েছি। আমরা দুজনই চেষ্টা করেছিলাম। রাফসান তার জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে। সবকিছুর পরে মনে হয়েছে, যেটা হয়তো পাঁচ বছর পরে ঘটবে, সেটা আগে হয়ে গেলেই ভালো; যা ওয়ার্ক আউট করছে না, সেটাকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাওয়ার কোনো মানে হয় না।’

তৃতীয় ব্যক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘রাফসান তৃতীয় কোনো ব্যক্তিকে আমাদের বিচ্ছেদের জন্য দায়ী করেছে। আসলে তৃতীয় ব্যক্তি বলতে ও আমার মাকে বুঝাতে চেয়েছে। কিন্তু আমার মায়ের জন্য আমি এই সিদ্ধান্ত নিইনি।’

উল্লেখ্য, একটি অনলাইন শপের ভিডিওচিত্র নির্মাণের সময় রাফসান এবং স্পর্শিয়ার বন্ধুত্ব তৈরি হয়। চার মাস প্রেম করার পর ২০১৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর স্পর্শিয়ার সাথে তার বাগদান হয়। ১ অক্টোবর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

এবার ঘর ভাঙলো স্পর্শিয়ার!