রোহিঙ্গাদের কাছে অবৈধ সিম বিত্রয়কারীদের শাস্তির দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, সময়ের কণ্ঠস্বর:

মিয়ানমার সরকার কর্তৃক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী বিতারণকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থী সম্প্রদায়ের কাছে যে সকল মোবাইল অপারেটর ও ব্যবসায়িক অবৈধভাবে সিম ও মোবাইল সেট বিক্রয় করে বাংলাদেশের নিরাপত্তাকে হুমকির মাঝে ফেলেছে, তাদের চিহ্নিত করে দ্রুত বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানান কবীর চৌধুরী তন্ময়।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশ আয়োজিত মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করার সময় এ দাবি জানান বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ) সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়।

কবীর চৌধুরী তন্ময় বলেন, অতীতেও মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের কাছে বাংলাদেশি সিম বিক্রি করেছিল কতিপয় মোবাইল অপারেটর ও রিটেইলার। তখন তাদের অপরাধ চিহ্নিত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করলে বর্তমানে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের কাছে আবারও একই ধরনের অপরাধ করার সুযোগ পেত না।

তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রায় ১০ লক্ষ রোহিঙ্গাদের মাঝে প্রায় ২ লক্ষেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী হাতে-হাতে বাংলাদেশের বিভিন্ন অপারেটরের সিমসহ মোবাইল সেটা ব্যবহৃত হচ্ছে। কালক্ষেপন না করে যত দ্রুত সম্ভব এই ধরনের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার হুমকির সাথে সম্পৃক্ত অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত শাস্তি নিশ্চিত ও জরিমানা করতে হবে।

শাস্তির পাশাপাশি এই ধরনের অবৈধ ব্যবসায়ি বা অপারেটরদের কাছ থেকে আইন অনুযায়ী জরিমানা আদায় করে তা শরণার্থীদের মাঝে দেওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ-এর সভাপতিত্বে এ সময় অন্যান্যদের মাঝে আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনএর মহাসচিব মেজর (অব.) ডাঃ হাবিবুর রহমান, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দলের চেয়ারম্যান শাসুল আলম, কর্মসংস্থান আন্দোলনের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।