কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সস্ত্রাসী টেনি নিহত, ৩ জন পুলিশ আহত

এস.এম.আবু ওবাইদা-আল-মাহাদী, কুষ্টিয়া  প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মিরাজ ওরূফে টেনি (২৭) নামে এক দূর্ধর্ষ সস্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

এ সময় উদ্ধার হয়েছে ১টি বিদেশী পিস্তুল, ১টি ম্যাগজিন ও ২ রাউন্ড পিস্তুলের গুলি। আহত হয়েছে পুলিশের ৩ সদস্য। আজ মঙ্গলবার ভোর রাত পৌনে ৪ টার দিকে পিপুলবাড়িয়া-বালিয়াডাঙ্গা মাঠের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে। নিহত টেনি উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের হৃদয়পুর ছাতারপাড়া গ্রামের আলম মন্ডলের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খাঁন পিপিএম জানান, একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটানোর উদ্দেশ্যে দৌলতপুর-কাতলামারী সড়কের পিপুলবাড়িয়া-বালিয়াডাঙ্গা মাঠের মধ্যে অবস্থানের গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানার এস আই শরিফুল ও এস আই রহিমের নেতৃত্বে পুলিশের টহল দল সেখানে অভিযান চালায়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশের গাড়ীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ একজনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা সন্ত্রাসী টেনিকে শনাক্ত করেন। তার বিরুদ্ধে হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধের দৌলতপুর থানায় ৪টা ও অন্যান্য থানায় ২ টা মোট ৬টা মামলা রয়েছে।