আত্মঘাতী গোলে মান বাঁচল বার্সার

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে আত্মঘাতী গোলে জয় পেয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো বার্সেলোনাকে। বেশ কষ্টে জয় পেতে হয়েছে মেসিদের।

লিওনেল মেসির ফ্রিকিক থেকে লুইস সুয়ারেজের একটি হেড ফেরাতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন স্পোর্টিংয়ের সেবাস্তিয়ান কোয়াতেস। এর সুবাদে ১-০ গোলের এই জয় দিয়ে চ্যাম্পিয়নস জয়ের ধারা অব্যাহত রাখল বার্সা।

ম্যাচের শুরু থেকেই বলের দখলে এগিয়ে থাকলেও ভালো কোনো আক্রমণ তৈরি করতে পারেনি বার্সেলোনা। অবশেষে ২৮তম মিনিটে আসে বড় সুযোগ। সের্হি রবের্তোর কাছ থেকে বল পেয়ে লুইস সুয়ারেস কাছের পোস্ট দিয়ে শট নিয়েছিলেন। গোলরক্ষক রুই পাত্রিসিওর দৃঢ়তায় গোল হয়নি। পরক্ষণেই সুয়ারেস ক্রস বাড়িয়েছিলেন লিওনেল মেসিকে। কিন্তু আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ডের হেডে বল যায় সোজা গোলরক্ষকের কাছে। অবশেষে আত্মঘাতী গোলে ৪৯তম মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা।

৫৭তম মিনিটে আরেকটি সুযোগ এসেছিল বার্সেলোনার। সুয়ারেসের বাড়ানো বল ডি-বক্স বিপজ্জনক জায়গায় পেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু শট নেয়ার আগ মুহূর্তে স্লাইডিং ট্যাকল করে তার পা থেকে বল বিপদমুক্ত করেন তার সাবেক সতীর্থ জেরেমি ম্যাথিউ।

৭০ মিনিটে স্পোর্টিং গোলটা পরিশোধ করে দিতেই পারত। কিন্তু সেটি হয়নি বার্সা গোলকিপার টের-স্টেগেনের দৃঢ়তায়। ডি বক্সের মধ্য থেকে ব্রুনো ফার্নান্দেজের দুর্দান্ত শটটি ঠেকিয়ে দেন তিনি।

মৌসুমটা এমনিতেই দারুণ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই শুরু করেছে বার্সেলোনা। এখনো পর্যন্ত যতগুলো খেলা হয়েছে, তাতে বার্সাকে ঠেকানোর কোনো পথ খুঁজে পায়নি প্রতিপক্ষ। প্রথম ম্যাচে ৩-০ গোলে ইউভেন্তুসকে হারানো বার্সেলোনা ‘ডি’ গ্রুপে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষ স্থানটিও ধরে রেখেছে।

এই জয়ে ডি গ্রুপে শীর্ষস্থান আরো সংহত করল।

রবি