বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ

মহসিন মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধি: ভারতে মহাত্মা গান্ধীর ১৪৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সোমবার সকাল থেকে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বানিজ্য বন্ধ রয়েছে। তবে বেনাপোল কাস্টম হাউজ ও বন্দরে কাজ কর্ম রয়েছে স্বাভাবিক। দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্ট যাত্রী চলাচলও রয়েছে স্বাভাবিক।

এর আগে ভারতে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে টানা পাঁচ দিন ১ অক্টোবর পর্যন্ত আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ছিল। টানা ছয় দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকার ফলে বেনাপোলের ওপারে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় পচনশীল পণ্যসহ শত শত পণ্য বোঝাই ট্রাক আটকা পড়ে আছে। অন্যদিকে রপ্তানি পণ্য নিয়ে বাংলাদেশি বহু ট্রাকও দাঁড়িয়ে আছে বেনাপোল চেকপোস্ট এলাকায়।  বাংলাদেশের গার্মেন্ট ইন্ডাস্ট্রিজ সহ শিল্প-কলকারখানার প্রায় ৯০ শতাংশ কাঁচামাল বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি হয়ে থাকে।

ভ্রাতের পেট্রাপোল ক্লিয়ারিং এজেন্ট স্টাফ ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী জানান, গান্ধীজির জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ভারতে সরকারি ছুটি থাকায় সোমবার দুই দেশের আমদানি-রপ্তানি বানিজ্য বন্ধ রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম পুনরায় চলবে বলে তিনি জানান।

বেনাপোল কাস্টমস এর ডেপুটি কমিশনার মারুফুল ইসলাম জানান, ওপারে মহাত্মা গান্ধীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সরকারি ছুটি থাকায় সোমবার সকাল থেকে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকে। তবে কাস্টম হাউজে কাজকর্ম স্বাভাবিক গতিতে চলছে।

বেনাপোল স্থলবন্দরের পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও বন্দরের কাজকর্ম স্বাভাবিক রয়েছে। বন্দরে মালামাল লোড-আনলোডসহ পণ্য খালাস চলছে।