গাজীপুরে সাংবাদিকের ওপর ভুয়া ‘চ্যানেল এস’ চক্রের হামলা

পলাশ মল্লিক, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর :

অনলাইন নিউজ পোর্টাল পূর্বপশ্চিমবিডি ডট নিউজের গাজীপুর প্রতিনিধি মাহমুদুল হাসানের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

ভুয়া টেলিভিশন ‘চ্যানেল এস’-এর সাংবাদিক পরিচয়ধারী চাঁদাবাজ চক্র এ হামলা চালায়।

সোমবার বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সাংবাদিক মাহমুদুল হাসান সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, তিনি বিকেলে বোর্ডবাজার থেকে জয়দেবপুর ফিরছিলেন। চান্দনা চৌরাস্তায় নেমে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করার সময় ওই চক্রের চাঁদাবাজি চোখে পড়ে। পরে প্রতিবাদ করলে তারা হামলা চালায়। হামলাকারীরা সুলতান সরকার ও জাহাঙ্গীর আলমের লোক পরিচয়ে তাকে গুলি করে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়।

মাহমুদুল হাসান জানান, চক্রটি ফোনে ঢাকা পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার মাসুদসহ কয়েকজনকে ডেকে আনে। এক নারীসহ তাদের ১১ জন তাকে সড়ক ও জনপথ ভবনের ভেতরে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। ছিনিয়ে নেয় ক্যামেরা ও ল্যাপটপ। পরে কয়েকজন পরিবহন শ্রমিক ও পথচারী তাকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

তিনি আরও জানান, চক্রের সদস্যরা চ্যানেল এস ও আরেকটি কথিত মিডিয়ার বুম দেখাচ্ছিল। চ্যানেল এসের কোন অনুমোদন নেই। গত মার্চে কক্সবাজারে তাদের একজনকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জহিরুল হাসান বলেন, সাংবাদিক মাহমুদুল হাসানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে সাংবাদিক মাহমুদুল হাসানের ওপর হামলার ঘটনায় বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা নিন্দা জানিয়েছেন। একই সাথে ওই ভুয়া সাংবাদিকদের অবিলম্বে গ্রেফতারেরও দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সাখাওয়াত হোসেন (সদর সার্কেল) বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে সুলতান সরকারের মোবাইলে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।