জন্ডিসে, বন্ধাত্ব্য ও ক্যান্সার প্রতিরোধ সহ সজনে ডাঁটার রয়েছে অসামান্য আরও গুণ !

স্বাস্থ্য ডেস্ক ~  দেখতে কাঠখোট্টা। অনেকে নাক সিঁটকান। কিন্তু এই সজনে ডাঁটার খাদ্যগুণ শুনলে চমকে ওঠার মতো অবস্থা হবে। এই সবজিটি রোগ তাড়ানোর উস্তাদ। আসুন জেনে নিই সজনের খাদ্যগুণগুলো-

সজনে ডাঁটায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে।

আয়রন, ভিটামিন, ক্যালসিয়ামের বিপুল ভাণ্ডার।

জ্বর, সর্দি-কাঁশির ক্ষেত্রে সুপার দাওয়াই সজনে।

অ্যাজমার সমস্যাতেও উপকারী সজনে ডাঁটা।

হাড় শক্ত করা কিংবা রক্ত পরিশ্রুত করায় উপযোগী সজনে।

গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে শিশু ও মা দুজনের স্বাস্থ্যের জন্যই এই ডাঁটা খুবই উপকারী।

অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান সমৃদ্ধ সজনে ডাঁটা, ফলে দেহে যেকোনো সংক্রমণ প্রতিরোধে এটির উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে।

ফাইল ছবি

গলায়, বুকে বা ত্বকে সংক্রমণ প্রতিরোধে সজনের জুড়ি নেই।

হজমশক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রেও সজনে ডাঁটা অতি উপযোগী।

কলেরা, ডায়েরিয়া থেকে কোলাইটিস বা জন্ডিসে সজনের রস খুবই উপকারী।

সজনে ডাঁটা নিয়ম করে খেলে ত্বক আরও উজ্জ্বল হয়।

বন্ধাত্ব্য প্রতিরোধেও উপযোগী সজনে।

সজনে ডাঁটা খাওয়া হাই ব্লাড প্রেশার রোগীদের ক্ষেত্রে বিশেষ উপকারী।

দেহের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখতেও এটি সাহায্য করে।

গবেষণায় উঠে এসেছে, ক্যানসার প্রতিরোধেও সজনের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

মানবদেহে অন্ত্রে টিউমার বা আলসারের মতো রোগের হাত থেকে অনেকটাই মুক্তি দিতে পারে সজনে।

দৃষ্টিশক্তি ভাল রাখতে, রেটিনার সুস্বাস্থ্যেও এটি উপকারী।

মহিলাদের জরায়ুতে সিস্ট-সমস্যার প্রভাব অনেকটাই কমানোর ক্ষমতা রাখে

মাথায় গভীর আঘাত বা যেকোনো ব্রেন ইনজুরির ক্ষেত্রে রোগীদের সজনে ডাঁটা খাওয়ানোর দাওয়াই দেন ডাক্তাররাই।

গল ব্লাডার সুস্থ রাখতে সজনে খুবই উপকারী।

রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়াতেও সজনে সহায়ক।