পারভেজ নয়, মিলাই পারভেজকে মারধর করতো!

বিনোদন ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর: গত ৫ অক্টোবর স্বামী পারভেজ সানজারির বিরুদ্ধে মারধর ও যৌতুকের অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেন বাংলাদেশের পপ গায়িকা মিলা। সেই মামলায় ৬ অক্টোবর গ্রেপ্তার হয়ে বর্তমানে জেলে রয়েছেন পারভেজ। গ্রেপ্তার হওয়ার দিন আদালতে তোলা হলে তাকে জামিনের আবেদন করেন তিনি। আবেদন নাকচ করে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জিয়ারুল ইসলাম আইনজীবীদের শুনানি শেষে পারভেজকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

কিন্তু যে অভিযোগে মামলা হয়েছে পারভেজের বিরুদ্ধে, সেই অভিযোগ মানতে নারাজ তার পরিবার।

একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেয়া বক্তব্যে এ বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছে পারভেজের মা। তিনি বলেছেন, ‘মিলা আমার ছেলের নামে মারধরের অভিযোগ এনেছে। এই অভিযোগ একেবারেই সত্যি নয়। বরং মিলাই আমার ছেলেকে মারধর করতো।’

তিনি আরও বলেন, ‘মিলা সব সময়ই ক্ষমতার দাপট দেখাতো। তার বাবা কর্ণেল। হেনতেন ইত্যাদি। আমরা সংসারটি টিকিয়ে রাখার অনেক চেষ্টা করেছি, অনেক কিছু মুখ বুজে মেনেও নিয়েছি। তাছাড়া মিলা যে যৌতুকের অভিযোগ এনেছে সেটাও পুরোপুরি মিথ্যা।’

অন্যদিকে যৌতুকের অভিযোগে বিস্মিত হয়েছেন পারভেজের এক সহকর্মীও। তিনি বলেন, ‘যে ছেলেটা বিমানের পাইলট। তার তো পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের প্রযোজন পড়ে না। সে তো নিজেই অনেক টাকা ইনকাম করে। পারভেজের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের ব্যাপারে জানতে পেরে খুবই অবাক হয়েছি।’

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ১০ বছর প্রেম করার পর চলতি বছরের ১২ মে পারভেজ সানজারিকে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন কণ্ঠশিল্পী মিলা। পারভেজ একটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সে পাইলট হিসেবে কর্মরত আছেন। কিন্তু কিছুদিন না যেতেই স্বামীর বিরুদ্ধে মারধর ও যৌতুকের অভিযোগ আনেন মিলা। শেষ পর্যন্ত সেই অভিযোগে থানায় মামলা করে স্বামী পারভেজকে জেলে পাঠিয়েছেন গায়িকা।