রূপসার আঠারোবেকী নদী খনন প্রকল্পে কথিত হামলার প্র‌তিবা‌দে সংবাদ সম্মেলন

জিএস‌কে শান্ত, স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট: খুলনার রূপসা উপজেলার শেয়ালী বাজার এলাকায় সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত অগ্রাধিকার ভিত্তিক প্রকল্পের ঠিকাদারি কাজে কথিত হামলাকে কেন্দ্র করে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বুধবার (১১ অ‌ক্টোবর) দুপুর ১২টায় খুলনা প্রেস ক্লাবের শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ মিলনায়তনে স্থানীয় ঘাটভোগ ইউপি চেয়ারম্যান সাধন অধিকারী এ সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় তিনি ইউপি নির্বাচনে পরাজিত মহল কর্তৃক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান প্রভাবিত হয়ে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান সাধন অধিকারী বলেন, আঠারোবেকী নদী খনন প্রকল্পটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত কাজ, আমরা এলাকাবাসী নদী খনন কাজের সর্বপ্রকার সহযোগিতা করছি। অথচ প্রকল্পের সাব-ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সাইমান ট্রেডার্সে গত ৮ অক্টোবর আমার নেতৃত্বে হামলা ও লুটপাট হয়েছে-মর্মে তারা অভিযোগ করেছে। বিষয়টি পত্রিকায় প্রকাশের পর প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের কর্তা-ব্যক্তিরা কথিত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা পায়নি।

সংবাদ সম্মেলনে ঘটনার মূল কারণ উল্লেখ করে বলা হয়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সাইমান ট্রেডার্স নদী থেকে বালি তুলে বিভিন্ন লোকের কাছে তা বিক্রি করছে। এছাড়া অপরিকল্পিতভাবে বালি তোলার কারণে এলাকা প্লাবিত ও জলাবদ্ধ হয়ে পড়ছে। এতে বাড়িঘর, এমনকি রান্নার চুলাও পানিতে তলিয়ে থাকছে। বিষয়টি জানার পর আমি কর্মরত ব্যক্তিদেরকে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করে বালি তোলার অনুরোধ করি। এখানে কাজে বাঁধা দেওয়া বা হামলার কোন ঘটনা ঘটেনি। অথচ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বিষয়টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে হামলার কাল্পনিক অভিযোগ করেছে।

বিষয়টি নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি দূর করতে তিনি সংবাদ সম্মেলনে পাল্টা প্রশ্ন রেখে বলেন, একজন জনপ্রতিনিধির দ্বারা কিভাবে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত অগ্রাধিকার ভিত্তিক এবং সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত প্রকল্পের ঠিকাদারি কাজে হামলা করা সম্ভব। তিনি এলাকাবাসীকে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তকরণ এবং ষড়যন্ত্রমূলক অভিযোগের সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত পূর্বক প্রকৃত দোষিদের শাস্তিও দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ঘাটভোগ ইউপি সদস্য সজিব মোল্লা, মনির ফকির, লাভলী বেগম, ফিরোজা বেগম, সুনীতি মালাকার, সেকেন্দার মোল্লা, শাকিল শিকদার, সহাদেব বৈরাগী, মনি মালাকার, মিটুল শেখ ও শফিকুল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।