অবশেষে সত্যিটা স্বীকার করল হানিপ্রীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অবশেষে পাঁচকুলাতে হিংসা ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় উসকানি দেওয়ার কথা স্বীকার করল হানিপ্রীত ইনসান। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে এমনই জানা গিয়েছে।

গত ৪ অক্টোবর পুলিশের জালে ধরা দেয় হানিপ্রীত ইনসান। আপাতত হরিয়ানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে ভণ্ডবাবার পালিতা কন্যা হানিপ্রীত। পুলিশি হেফাজতে থাকার জন্য তার সময়কাল বাড়িয়ে ১৩ অক্টোবর করেছে আদালত।

পুলিশের দাবি, দীর্ঘ ৩৮ দিন ভাটিন্ডাতে গা ঢাকা দিয়ে ছিল হানিপ্রীত ইনসান ওরফে প্রিয়ঙ্কা তনেজা।

অগস্ট মাসে রাম রহিমের ডেরাররই দুই সাধ্বী তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে রাম রহিমকে গ্রেফতার করা হলে চণ্ডীগড়, হরিয়ানা এবং দিল্লির কিছু অংশে হিংসাত্মক হয়ে ওঠে ডেরার সমর্থকরা।

পরিস্থিতি এতটাই মারাত্মক আকার ধারণ করে যে, ৪১ জনের মৃত্যু হয়।

হানিপ্রীতের তত্বাবধানেই এই হিংসা ছড়ায় বলে অনুমান ছিল পুলিশের। আর তাই দেড় মাস ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে গা ঢাকা দিয়েছিল হানিপ্রীত। অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ার পরে হানিপ্রীত স্বীকার করে যে, তার উসকানিতেই এই ঘটনা ঘটে।