শক্ত অবস্থানে ছাত্রলীগ; হরতাল কর্মসুচী দিয়ে মাঠে নেই জামায়াতের কেও !

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি-
আজ বৃহস্পতিবার সারাদেশে হরতাল ডেকেছে যুদ্ধপরাধের দায়ে অভিযুক্ত রাজনৈতিক দল জামায়াতে ইসলামী। জামায়াতে ইসলামির নায়েবে আমির ও সেক্রেটারি জেনারেলকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে গত মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ হরতালের কথা জানানো হয়। জামায়াতের ঘোষণার পরই বুধবার ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রলীগের নেতারা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঘোষিত হরতাল প্রতিরোধের আগাম ঘোষণা দেন ।

জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা জানান, অযৌক্তিক হরতাল প্রতিরোধে এবং জনগণের যাতে কোন অসুবিধা না হয় সেদিকে সর্বাত্মক খেয়াল রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ঠাকুরগাঁওয়ের ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।

ঘোষিত কর্মসুচি অনুযায়ি আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে বাসষ্টান্ড থেকে হরতালের প্রতিবাদে মিছিলের আয়োজন করে ঠাকুরগাও জেলা ছাত্রলীগ।
জেলা ছাত্রলীগের দায়িত্বশীল সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মানিক সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, হরতালকারীরা যাতে অপ্রীতিকর কোন ঘটনা ঘটাতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকবে তার সংগঠনের নেতা কর্মীরা।

এ ব্যপারে ঠাকুরগাও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহাবুব হোসেন রনি বলেন- জামায়াতের এই হরতাল শক্তভাবে প্রতিরোধ করবে ঠাকুরগাও জেলা ছাত্রলীগ। কোন কর্মসূচী না থাকলেও সর্বদা জনগণের সহায়তায় রাজপথে থাকবে ছাত্রলীগ।

ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রলীগের হরতাল প্রতিরোধ কর্মসুচীর ছবি

ঠাকুরগাও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার পারভেজ পুলক জানান- ঠাকুরগাওয়ে যেখানেই জামায়াত হরতাল পালনের চেষ্টা করবে, সেখানেই তাদের প্রতিহত করবে জেলা ছাত্রলীগ। জেলা ছাত্রলীগের আওতাধীন প্রতিটি ইউনিটেই হরতালের বিরুদ্ধে সক্রিয় থাকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঠাকুরগাও সদর থানা ছাত্রলীগের ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল হালিম বলেন- জামায়াত কোন রাজনৈতিক সংগঠন নয়, এরা জঙ্গী সংগঠন। আর এদেশের মানুষ এখন হরতাল মানেনা। তবুও কোন অঘটন যাতে না ঘটে সে ব্যপারে সক্রিয় থাকবে সদর থানা ছাত্রলীগ।

সদর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিমেল বলেন- যুদ্ধপরাধীদের দল জামায়াতের হরতালের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকালে রাজপথে থাকবে সদর থানা ছাত্রলীগ। এছাড়া হরতালকারীরা যাতে সাধারণ জনগণের জানমালের কোন ক্ষতি করতে না পারে সে ব্যপারেও লক্ষ রাখবে ছাত্রলীগ।