জামায়াতের হরতালে সাড়া নেই রাজধানীতে, যান চলাচল স্বাভাবিক

নিজস্ব প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর– আমির মকবুল আহমাদ, সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের মুক্তির দাবিতে জামায়াতের ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতালে রাজধানীতে সাড়া নেই। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে হরতাল শুরু হয় চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

সকাল থেকে রাজধানীতে হরতালের প্রভাব পড়েনি। অন্যান্য কর্মদিবসের মতো স্বাভাবিকভাবে চলছে যানবাহন। বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে যানজটও দেখা গেছে। তবে ভোর থেকে রাজধানীতে জামায়াত নেতাকর্মীদের কোনো কর্মসূচি চোখে পড়েনি।

ঢাকা বা বিভাগীয় জেলা শহরগুলোয় কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। সকালে কিছুটা কম থাকলেও, বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গণপরিবহন বাড়ছে। গাবতলী, সায়েদাবাদ এবং মহাখালী বাস টার্মিনালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকাল থেকেই দুর পাল্লার যানবাহন চলাচল করছে।

অন্যদিকে, জামায়াতের ডাকা হরতালকে কেন্দ্র করে রাজধানীসহ সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। খুবই সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

হরতালে নাশকতা এড়াতে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে মোতায়েন করা হয়েছে বাড়তি পুলিশ। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে পুলিশের পাশাপাশি র্যানব সদস্যদের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা গেছে।

এর আগে মঙ্গলবার জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান এ হরতাল কর্মসূচির ঘোষণা দেন। শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল সফল করতে জামায়াত-শিবিরের পক্ষ থেকে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালনের আহ্বান জানিয়ে দলের নতুন ভারপ্রাপ্ত আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান এক বিবৃতিতে জানান, সারাদেশে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ এবং গ্রেপ্তারকৃত নেতাদের মুক্তির জন্য আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী দোয়া দিবস হিসেবে পালিত হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, হাসপাতাল, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, সংবাদপত্র সংশ্লিষ্ট গাড়ি এবং ওষুধের দোকান হরতালের আওতামুক্ত থাকবে।

এদিকে আজকের হরতালে গাড়ি চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। গতকাল বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, সমিতির সাধারণ সম্পাদক এনায়েত উল্যাহ তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, বিগত দিনে হরতাল অবরোধের নামে পরিবহনের ওপর যে ধ্বংসযজ্ঞ ও নাশকতা চালিয়েছিল সেই ক্ষতি মালিকেরা এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। তাই জনবিরোধী এ হরতালে মালিক-শ্রমিকেরা কখনো সাড়া দেবে না, ঘৃণার সঙ্গে প্রত্যাখ্যান করবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মালিক শ্রমিকরা আজ হরতাল উপেক্ষা করে ঢাকা শহর ও ঢাকার আশপাশের জেলাগুলোতে বাস-মিনিবাস চলাচল অব্যাহত রাখবে। যাত্রী পাওয়া সাপেক্ষে আন্তঃজেলা রুটের গাড়িগুলোও চলবে। আর হরতালে গাড়ি চলাচল যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় সে জন্য শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে পুলিশ প্রশাসনকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এর আগে সোমবার রাতে রাজধানীর উত্তরার একটি বাসা থেকে শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আমীর ছাড়াও রয়েছেন জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল শফিকুর রহমান ও কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মিয়া গোলাম পরওয়ারসহ ৯জন।

রবি