দাবানলে পর্তুগাল ও স্পেনে প্রাণ হারালেন ৩৪ জন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- পর্তুগাল ও স্পেনের গ্যালিসিয়া অঞ্চলে ভয়াবহ দাবানলের ঘটনায় ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার এ ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষ হতাহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ৩১ জন পর্তুগালের উত্তরাঞ্চল ও কেন্দ্রীয় অংশের। বাকি তিন জনের মৃত্যু হয়েছে স্পেনে। ভয়েস অব আমেরিকার এ খবর জানিয়েছে।

এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, রোববার থেকে শুরু হওয়া প্রায় ১৪৫টি দাবানলের মধ্যে কয়েক ডজনকে গুরুতর বলে বিবেচনা করছে পর্তুগালের বেসামরিক প্রতিরক্ষা কর্তৃপক্ষ।

পর্তুগালে আগুনে পুড়ে মারা গেছেন ৩১ জন। এছাড়া আহত হয়েছেন ৫০ জনেরও বেশি মানুষ । এদের মধ্যে ১৫ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। এখনো নিখোঁজ রয়েছেন বেশ কয়েকজন। এদের মধ্যে এক মাস বয়সী একটি শিশুও রয়েছে। দেশটির কোয়িমব্রা, গুয়ার্দা, ক্যাস্টেলো ব্রানকা এবং ভিসেউ এলাকায়ই অধিকাংশ মানুষের মৃত্যুর ঘটনাগুলো ঘটেছে।

ইউরোপের পশ্চিম উপকূলের দিকে এগিয়ে আসা হারিকেন ওফেলিয়ার কারণে পরিস্থিতি আরো নাজুক হয়েছে। হারিকেনের প্রবল বাতাসের কারণে আগুন আরো জোরালো হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়েছে।

পর্তুগালের টাগুস নদীর উত্তরপাশে দেশটির প্রায় অর্ধেক এলাকাগুলোজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। সোমবার সকালে দাবানল কবলিত এলাকাগুলোতে ছয় হাজারেরও বেশি দমকল কর্মী ও এক হাজার ৮০০ গাড়ি মোতায়েন করা হয়। অন্তত ১২টি সড়ক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কয়েকটি এলাকায় স্কুলও বন্ধ রাখা হয়েছে।

চলতি বছরের জুনে পর্তুগালে বড় ধরনের আরেকটি দাবানলের ঘটনায় ৬৪ জন নিহত ও ১৩০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছিল।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি