দক্ষিনাঞ্চলের সর্ববৃহৎ ঐতিহ্যবাহী কুন্ডুবাড়ি মেলা কাল শুরু

এইচ এম মিলন, কালকিনি প্রতিনিধি: মাদারীপুরের কালকিনিতে দেড়শ বছরের ঐতিহ্যবাহী সর্ববৃহৎ কুন্ডুবাড়ির মেলা বৃহস্পতিবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে।

দক্ষিনাঞ্চলের মধ্যে সর্ববৃহৎ এ মেলাটি ৭ দিন ব্যাপি চলতে থাকবে। গৃহস্থালী পন্যের সমাহার  নিয়ে এই মেলায় খুবই কম দামে খাট-পালং, সোফা, চেয়ার-টেবিলে ও সুকেচ-আলমারিসহ বাঁশ ও বেতের বিভিন্ন সামগ্রী পাওয়া যায়। এদিকে অপ্রিতিকর ঘটনা রোধে এ মেলাকে ঘিরে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থাপনায় রয়েছেন বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনি।

জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে কালকিনি উপজেলার ভুরঘাটা সংলগ্ন কুন্ডুবাড়ি নামে স্থানীয় বনেদী পরিবারের পক্ষ থেকে শ্যামা কালীপুজা উপলক্ষে প্রায় দেড়শ বছর আগে এই মেলার দীননাথ কুন্ডু ও মহেশ কুন্ডু এই মেলার প্রবর্তন করেন। বর্তমানে সাত দিন ব্যাপী মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

মেলাকে কুন্ডুবাড়ির কালীমন্দির ও বাড়ির চারপাশে এবং ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের প্রায় দুই কিলোমিটার  এলাকা ঘিরে বিভিন্ন পন্যের পসরা নিয়ে বসে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ব্যবসায়ীরা। এখানে জিনিসপত্র বিক্রি করতে আসেন  খুলনা, যশোর, বাগেরহাট, রাজশাহী, নওগাঁ, বগুড়া, বরিশাল, মাগুরা ও নড়াইলসহ দেশের বিভিন্নস্থানের ব্যবসায়ীরা। তবে সকল জিনিসপত্রের মধ্যে কাঠের ফার্নিচারের মালামাল ও শিশুদের খেলনা সামগ্রীর বেশি বেচাকেনা হয় বলে জানা যায়। এখানে অল্প দামে পন্য সামগ্রী পাওয়ায় দেশ-বিদেশের লক্ষ-লক্ষ দর্শনাতির এ মেলায় সমাগম হয়।

দোকানী শামীম হাওলাদার, সোহেল মাতুব্বর ও বাবুলসহ বেশ কয়েকজন বলেন, এবারের মেলায় শিশুদের খেলনা ও কাঠের জিনিসপত্র বেশি উঠেছে। ক্রেতাদের চাহিদা অনুসারে সব জিনিসপত্র ক্রয় ক্ষমতার মধ্যেই রয়েছে।

মেলায় আসা ক্রেতা নাজমুল, নেছার ও জুয়েল বলেন, এই মেলায় আমরা প্রত্যেক বছরই কেনাকাটা করতে আসি। তবে এ বছর এ মেলা আগের তুলনা বেশি জমবে।

মেলা কমিটির সভাপতি ভজন কুন্ডু বলেন, আমাদের পূর্ব পুরুষদের ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমরা এ মেলার প্রতিবছর আয়োজন করে থাকি।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, কুন্ডুবাড়ি মেলাকে ঘিরে পুলিশসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনি সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে নিয়োজিত থাকবেন।