নরসিংদীর শিবপুরে বাবার সম্পত্তির অংশ চাওয়ায় গৃহবধুকে এসিড মারলেন চাচী!

মো. হৃদয় খান, স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর শিবপুরে বাবার সম্পত্তির অংশ চাইতে গিয়ে চাচীর হাতে এসিড আক্রান্তের শিকার হয়েছে শারমীন সুলতানা (২৮) নামের এক গৃহবধু। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার দত্তেরগাঁও গ্রামে তার পৈতৃক বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। এসিড আক্রান্তের শিকার শারমীনকে রাতে নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে জরুরী অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শারমীন সুলতানা শিবপুর উপজেলার দত্তেরগাঁও গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মৃত. সিরাজ উদ্দিনের মেয়ে।

গৃহবধু শারমীনের স্বামী মাসুদ রানা জানান, আমার স্ত্রী শারমীনের সাথে তার চাচা বেদার উদ্দিনের সাথে পৈতৃক সম্পত্তির অংশ নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিলো। এরই প্রেক্ষিতে গতকাল রাতে তার চাচার বাড়িতে শুক্রবার শালিশে বসার কথা জানাতে গেলে তার চাচী ফরিদা ইয়াসমীন ঘর থেকে বের হয়ে একটি বোতল থেকে তাকে লক্ষ্য করে এসিড ছুড়ে মারে। সেসময় চাচীর ছোড়া এসিডে তার বাম হাত কাঁধ থেকে কব্জি পর্যন্ত পুরো ঝলসে যায়। পরে তার আর্তচিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে আমাকে খবর দিলে আমি তাকে নিয়ে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে জরুরী অবস্থায় ঢাকা রেফার্ড করেন। সে বর্তমানে এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এই ঘটনায় এসিড আক্রান্তের শিকার শারমীন সুলতানা ও তার স্বামী অপরাধীদের গ্রেফতার সহ সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানিয়েছেন।