৪ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালিকে ছাড়াই হবে এবারের বিশ্বকাপ!

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: ১৯৫৮ সালের পর এই প্রথম চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালিকে ছাড়াই হবে বিশ্বকাপ। তবে বিশ্বকাপে যাওয়ার জন্য ইতালির সুযোগ এখনো শেষ হয়ে যায়নি। রাশিয়ার টিকেট কাটতে হলে প্লে অফে সুইডেনকে হারাতে হবে ইতালিকে।

ফিফার নিয়ম অনুযায়ী, ইউরোপ থেকে এবার বিশ্বকাপে খেলবে ১৪টি দল। রাশিয়া যেহেতু স্বাগতিক দেশ হিসেবে খেলবে, তাই বিশ্বকাপের টিকেট পাবে ইউরোপের ১৩টি দেশ। যার মধ্যে নয়টি দেশ এরই মধ্যে তাদের জায়গা নিশ্চিত করে ফেলেছে। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে এরই মধ্যে রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে বেলজিয়াম, ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, আইসল্যান্ড, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, সার্বিয়া ও স্পেন।

অপেক্ষায় আছে আরো চারটি দেশ। প্রতিটি গ্রুপের দ্বিতীয় স্থানে থাকা আটটি দল খেলবে প্লে অফে। পয়েন্ট কম থাকায় নবম গ্রুপের দল স্লোভাকিয়া প্লে অফে খেলতে পারছে না।

প্লে অফে ড্র অনুয়ায়ী, নর্দান আয়ারল্যান্ড খেলবে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে। সাবেক ইউরো চ্যাম্পিয়ন গ্রিসের মুখোমুখি হবে ক্রোয়েশিয়া। রিপাবলিক অব আয়াল্যান্ড খেলবে ডেনমার্কের বিপক্ষে আর ইতালির বিপক্ষে খেলবে সুইডেন। খেলা চোখে দেখলে মনে হচ্ছে, সুইজারল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও ডেনমার্কের বিশ্বকাপের খেলার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।

প্লে অফের সবার আকর্ষণ থাকবে ইতালি ও সুইডেনের ম্যাচটিকে ঘিরে। স্পেনের গ্রুপে পড়ায় ইতালি শেষ পর্যন্ত সরাসরি বিশ্বকাপের টিকেট পায়নি। গ্রুপ পর্বে মাত্র একটি ম্যাচে হেরেছে ইতালি। বলাই বাহুল্য, সেটি স্পেনের বিপক্ষে। বাছাইপর্বে দুর্দান্ত খেলেছে বুফনের দল। জর্জিও চিয়েল্লিনি, লরেঞ্জো ইনসিগনে, লিওনার্দো বোনুচ্চেরা পুরো বাছাইপর্বে অসাধারণ খেলেছেন। তবে বাছাইপর্বের নবম ম্যাচে মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে ড্র করেই নিজেদের কপালটা পোড়ায় ইতালি। সেই ম্যাচে ড্রয়ের কারণেই প্লে অফ খেলতে হচ্ছে বুফনদের।

ইতালি ভাগ্য-বিড়ম্বনার শিকার হলেও সেদিক থেকে সুইডেনকে বেশ ভাগ্যবান বলতে হবে। বাছাইপর্বে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে একটি ম্যাচেও জয় পায়নি ক্লাসেনরা। ফ্রান্স ও বুলগেরিয়ার বিপক্ষে হেরে বিশ্বকাপ কঠিন করে ফেলেছিল দেশটি। ফিরতি লেগে ফ্রান্সকে ২-১ ও লুক্সেমবার্গকে ৮-০ গোলে হারিয়ে নেদারল্যান্ডসের সমান পয়েন্ট সংগ্রহ করে। বাছাইপর্বে ২৬ গোল করায় ডাচদের টপকে প্লে অফের লড়াইয়ে চলে আসে সুইডিশরা। ২১ গোল করা নেদারল্যান্ডস বাদ পড়ে যায় বাছাইপর্ব থেকে।

এখন দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপে যাওয়ার লড়াইয়ে শেষ হাসিটা হাসে কোন দল।