বৃষ্টিতে জনদুর্ভোগ চরমে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে

পলাশ মল্লিক, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: টানা দুইদিনের প্রবল বর্ষণে গাজীপুরের বিভিন্ন রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে। বৃষ্টির পানি রাস্তা ছাপিয়ে অনেকের বাসা বাড়িতে ঢুকেছে। এতে করে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

আজ শনিবার সকালে যারা বাসা থেকে বের হয়ে কর্মস্থলে গিয়েছেন তাদের দুর্ভোগের যেন অন্ত ছিল না। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে স্কুল কলেজগামী শিক্ষার্থীরা।

এদিকে বৃষ্টির কারণে শুক্রবার রাত থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। যার কারনে ১৫ ঘণ্টাতেও যেতে পারছে না যাত্রীরা গৌন্তব্যে। অব্যাহত মুষলধারে বৃষ্টি আর জমে থাকা জলাবদ্ধতার কারণে সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে ভোগান্তি।

বিআরটি রোডের কাজ চলায় বিভিন্ন স্থানে মহাসড়কে যানবাহন এক লেনে চলাচল করায় আরও যানজট বেড়ে ভোগান্তির সৃষ্টি হচ্ছে।

ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট আব্দুল্লাহ আল মারুফ খাঁন জানায়, বৃষ্টির কারণে রাস্তায় জলাবদ্ধতা এবং রাস্তার বিভিন্ন স্থানে গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় ভারি যানবাহন আটকে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া সড়কে তিনটি যান উল্টে রয়েছে, সেগুলো সরাতে রেকার আনা হচ্ছে। মূলত যানজট থাকায় সঠিক সময়ে রেকার পৌঁছাতে পারছেনা।

দুপুর সোয়া ২টায় তিনি হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়ে দায়িত্ব পালন করছেন জানিয়ে বলেন, বৃষ্টির কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তা, ভোগড়া, বাইপাস মোড়, বাসন সড়ক, তারগাছ, কুনিয়া, সাইনবোর্ড ও বোর্ডবাজার এলাকার রাস্তা পানিতে তলিয়ে রয়েছে। যার ফলে এ সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।

তবে যতক্ষণ না উল্টে থাকা গাড়ি সরানো যাবে যতক্ষণ এ যানজট লেগে থাকবে বলেও জানান তিনি