দিন দুপুরে ব্যস্ততম রাস্তায় তরুণীকে ধর্ষণ, সাহায্যে এগিয়ে না এসে মোবাইলে ভিডিও ধারণ!

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: ভারতে বিশাখাপত্তনমে দিন দুপুরে প্রকাশ্যে রাস্তায় এক ফুটবাসিনীকে ধর্ষিতা হতে দেখেও সাহায্যে এগিয়ে এলেন না পথ চলতি মানুষ! বরং মোবাইলে গোটা ঘটনার ভিডিও তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়লেন এক অটোচালক! পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্যাতিতাকে মহিলাকে উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে।

শহরের ব্যস্ততম রাস্তাগুলির অন্যতম রেলওয়ে কোয়াটার্স লাগোয়া রাস্তাটি। দিনভর সেখানে লোকজনের আনাগোনা লেগে থাকে। রোববার স্থানীয় সময় দুপুর দুইটায় সেই রাস্তারই ফুটপাতে পথ চলতি হাজারো মানুষের সামনেই ঘটনা ঘটে গেল এক মর্মান্তিক ঘটনা।

পুলিশ জানিয়েছে, রেলওয়ে কোয়াটার্স লাগোয়া রাস্তার ফুটপাতে এক গাছের পাশে বসেছিলেন তরুণী। আচমকাই তাঁর উপর চড়াও হয় এক মদ্যপ যুবক। খোলা আকাশের নিচে, সকলের সামনেই ওই তরুণীকে ধর্ষণ করতে শুরু করে সে। ফুটপাতে শুয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছিলেন ওই তরুণী। কিন্তু, চোখের সামনে এক মহিলাকে ধর্ষিতা হতে দেখেও সাহায্য করা তো দূর অস্ত, দু’দণ্ড থমকে দাঁড়ানোর সময় ছিল না কারও। সকলেই পাশ কাটিয়ে চলে যাচ্ছিলেন। এরইমধ্যে আবার এক অটোচালক নিজের মোবাইলে গোটা ঘটনার ভিডিও তুলে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এভাবেই কেটে যায় অনেকটা সময়। শেষপর্যন্ত ওই অটোচালকই ভিডিও নিয়ে স্থানীয় থানায় হাজির হন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নির্যাতিতা মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে।

অটোচালকের মোবাইলে তোলা সেই ভিডিওটি ভাইরাল হতে সময় লাগে না। ঘটনা দেশ জুড়ে প্রতিবাদে ঝড় উঠেছে। ওই অটোচালকের বিরুদ্ধেও অভিযোগ দায়ের করার দাবি করেছেন মহিলাদের অধিকার নিয়ে আন্দোলনকারীরা। তাঁদের বক্তব্য, ভিডিও না তুলে ওই অটোচালক নির্যাতিতাকে মহিলাকে সাহায্য করতে পারতেন। তিনি তা করেননি।