ফুলবাড়ী সীমান্তে ভারতে পাঁচারের সময় নারী পুরুষ ও শিশুসহ আটক ৩৯, পাচার ২

অনীল চন্দ্র রায়,ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার খলিশাকোঠাল ও বালাহাট সীমান্তে গত তিন মাসে অবৈধ ভাবে ভারতে পাঁচারের সময় নারী, পুরুষ ও শিশুসহ ৩৯ জন আটক । ভারতে পাচার ২ । গত ২৯ আগষ্ট রাত সাড়ে ১০ টার দিকে কয়েকটা অটোবাইক যোগে অপরিচিত কিছু নারী পুরুষ ও শিশুসহ সীমান্তে আসলে এলাকাবাসী বিজিবিকে খবর দেয়। পরে বিজিবি ও পুলিশ তাদেরকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- আছমা খাতুন (১৯),রহিমা বেগম (৪৬),মহিমা বেগম(৩৭),ছেলে মাহিম(৪),তানিয়া বেগম(৩৮),মেয়ে লামিয়া(৭),আছমা বেগম(৩৩),ছেলে ইয়াছিন (৩), শাহিদা বেগম(৪১),ছেলে শিপন(১১),মেয়ে ছাদিয়া(৬),রাজিয়া বেগম(৩৪),মেয়ে আজমিরা (৪),আক্তাবুল বেগম(৪৫),মাসুদ মিয়া(৩২),ছেলে মামুন (২২),সরওয়ার হোসেন (৩৫),ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (২৬), ছেলে ফারুক (২৭), জালাল হোসেন (২১),আবুল বাশার (২০), শফিকুর রহমান (৪৫),ছেলে জুহের আলী (১৯), মনোয়ার হোসেন (১৯), সাইদুল খান (২৩),মাহবুব আলম (৩০),ছেলে জালাল শেখ (২৯),ছেলে আজিজুল গাজি (২২), মহাম্মদ আলী (৪৫),তাজুল (১৯),দবির হোসেন (২১),সাদ্দাম হোসেন(৩০)মাইনুদ্দিন (১৯), মনজুর আহম্মেদ (২৮),বাহার আলী খান (২৭)।

এদের সবার বাড়ী সুনামগঞ্জ, মোড়লগঞ্জ, বাগেরহাট, সিলেট, কুমিল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায়। খালিশাকোটাল সীমান্তের আন্তর্জাতিক পিলার নং ৯৩৪ এর নিকট দিয়ে ভারতের দিল্লীতে যাওয়ার জন্য দুই দেশের দালালের মাধ্যমে সীমান্ত এলাকায় আসেন। অপর দিকে গত ২৭ অক্টোবর উপজেলার খলিকোঠাল সীমান্তে আন্তর্জাতিক পিলার ৯৩৪ এর সাব পিলার নং ১১ এসের নিকট দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করলে বিজিবি টহলরত সদস্যরা ভারতীয় চার হাজার ৩০০ রূপীসহ রুবেল রানা(২৩) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে আটক করেছে । সে উপজেলার সদর ইউনিয়নের কুটিচন্দ্রখানা গ্রামের নছর উদ্দিনের ছেলে।

অন্যদিকে খলিকোঠাল সীমান্তে গত ২৪ অক্টোবর রাতে উপজেলার খালিশাকোঠাল আন্তর্জাতিক সীমান্তের ৯৪৩ এর ১১ সাব পিলার দিয়ে পাচারের সময় এ ঘটনা ঘটে। ২৫ অক্টোবর বুধবার ভোরে ভারতের ৩৮ বিএসএফ আহত তিন যুবককে ফেরত পাঠান। পরে ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়ন বালারহাট বিওপি’র কাছে আটককৃতদের মারাত্বক আহত অবস্থায় কাটাতারের বাইরে ছেড়ে দিলে বিজিবি উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফুলবাড়ী থানায় সোপর্দ করেছে। আটকরা হলেন কিশোরগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার নীলগঞ্জ গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আরমান (২৫) একই গ্রামের মতি মিয়ার ছেলে আল আমিন (২৭) ও সাহাব উদ্দিনের ছেলে বাবুল মিয়া (২২)। অন্য দিকে ২৮ আগট উপজেলার খলিশাকোঠাল সীমান্ত দিয়ে স্বামী-স্ত্রীকে ভারতে পাচার করা হয়েছে। পাচারকারী চক্রটিকে সনাক্ত করতে পারলেও পাচারের শিকার তরুণীকে উদ্ধার করার পরেও ফেরত দেয়নি পরিবারকে। তারা নাগেশ^রী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের ফকিরেরহাট খেউনিটারী গ্রামের সবুর আলীর মেয়ে শাহিদা ওরফে রুমি (২২), একই উপজেলার রামখানা দিঘিরপাড় গ্রামের শাহের উদ্দিনের ছেলে মোফাজ্জল হোসেন মোফা (৩৫)।

এ ব্যাপারে ১৫ বিজিবি বালারহাট বিওপি’র ক্যাম্প কমান্ডার হাবিলদার রেজাউল করিম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান,আমরা আসার সঙ্গে সীমান্তে অনেক পরিবর্তন এসেছে। এখন সব সময় সীমান্তে টহল জোড়দার রেখেছি। ২৫ দিনেই চারজন যুকককে আটক করে থানায় সোর্পদ করেছি এবং মাদকসহ গোরকমন্ডল সীমারন্ত সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার শাড়ী উদ্ধার করা হয়েছে।