টুইট করে ‘বাংলাদেশি সমর্থকদের’ তীব্র সমালোচনার মুখে সাকিব-তামিম!

আইপিএল, বিপিএলের আদলে অনুষ্ঠিত পাকিস্তানের ঘরোয়া টি-২০ টুর্নামেন্ট পাকিস্তান সুপার লিগ- পিএসএলের তৃতীয় আসরে ডাক পেয়েছেন সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। গেল আসরে পেশোয়ার জালমির হয়ে মাঠ মাতিয়েছিলেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় আসর শেষে তামিমকে বেচে দিলেও সাকিবকে রেখে দিয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। পরবর্তীতে নিলাম থেকে সেই তামিমকেই আবার কিনে নিয়েছে পেশোয়ার জালমি। ফলে গেল আসরের মতো এবারও একই দলের হয়ে মাঠ মাতাবেন দুই বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাকিব-তামিম।

আর পিএসএলে দলে পেয়ে দলটির মালিক জাভেদ আফ্রিদিকে ধন্যবাদ জানাতে ভুল করেননি তামিম। নিজের টুইটার থেকে পেশোয়ার জালমির কর্ণধার জাভেদ আফ্রিদিকে ধন্যবাদ জানান তামিম। তবে ধন্যবাদ জানাতে যে ভাষা ব্যবহার করেছেন, তা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন। বাংলা বা ইংরেজি নয়, পশতু ভাষায় সেই টুইট লিখেছেন দেশসেরা বাঁহাতি এই ওপেনার। ফ্র্যাঞ্চাইজি রেখে দেওয়ায় নিলামে নাম ছিল না সাকিবের। তবে নিলাম শেষে বিশ্ব সেরা এই অলরাউন্ডারও ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিককে ধন্যবাদ জানিয়ে পোস্ট করেন টুইটারে। তামিমের মতো সাকিবও পেশোয়ারের স্থানীয় ভাষা পশতুতে টুইটটি করেন। এরপরই বাংলাদেশি সমর্থকদের সমালোচনার মুখে পড়েন বাংলাদেশ ক্রিকেটের জনপ্রিয় এই দুই তারকা ক্রিকেটার।

সমর্থকদের প্রশ্ন, বাংলাদেশি হয়ে কেন পশতু ভাষায় টুইট করলেন সাকিব-তামিম? বাংলা না হোক অন্তত ইংরেজি ভাষায়তো পোস্ট করতে পারতেন তারা। একের পর এক সমালোচনার তীর ধেয়ে যেতে থাকে সাকিব-তামিমকে লক্ষ্য করে। কেউ কেউ বলছেন, পাকিস্তানি অর্থের কাছে দেশপ্রেমই বিক্রি হয়ে গেল।

জুনায়ের কবির নামের একজন সমর্থক রিটুইটে লিখেছেন, ‘দুঃখজনক! এত আদিখ্যেতার কী আছে! আজব! আর এইটা কী ভাষা! ইংরেজিতে কথা বলতে সমস্যা কী ছিল? দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রতিনিধিদের কাছ থেকে আরেকটু বেশি আশা করি…।’ জাহিদুল ইসলাম জনি নামের আরেক সমর্থক লিখেছেন, ‘বাংলা লিখতে লজ্জা যদি লাগে তবে ইংরেজিতে লিখতে পারতেন কিন্তু এটা কোন ভাষায় লিখলেন?’

আফরোজা নাজনীন বীথি নামের একজন সমর্থক লিখেছেন, ‘আমার তো মনে হয় ১৯৫২, ১৯৭১ সাল ভুলে গেছ। বাংলাদেশি হিসেনবে এটা চরম হতাশার।’

তারেক রায়হান ফুয়াদ নামের আরেক সমর্থক লিখেছেন, ‘বাংলাদেশিদের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে আপনি ওই পাকিস্তানিদের মন রক্ষা করতে চাইছেন! কখনোই এর আগে আপনার সমালোচনা করিনি জীবনে। কিন্তু আজ আপনি এবং সাকিব খুবই কষ্ট দিলেন।’