ফরহাদ মজহার ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলার আবেদন পুলিশের

সময়ের কণ্ঠস্বর- কবি, প্রাবন্ধিক ও রাজনৈতিক ভাষ্যকার ফরহাদ মজহার অপহরণ মামলার অভিযোগের সত্যতা পায়নি পুলিশ।

আদালতে এ মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়ে ভুক্তভোগী ফরহাদ মজহার ও মামলার বাদী তাঁর স্ত্রী ফরিদা আখতারের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলা করার অভিযোগ এনে মামলার অনুমতি চেয়েছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে মজহারকে অপহরণ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ডিবির পরিদর্শক মাহবুবুল ইসলাম প্রতিবেদন দাখিল করে মামলার অনুমতি চান।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, আগামী ৭ ডিসেম্বর ঢাকার মহানগর হাকিম খুরশীদ আলমের আদালতে ফরহাদ মজহার অপহরণ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৩ জুলাই ভোর ৫টার দিকে বাসার সামনে থেকে কে বা কারা ফরহাদ মজহারকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণের আধা ঘণ্টা পর ফরহাদ মজহারের ফোন থেকে তার স্ত্রী ফরিদা আখতারের কাছে কল আসে। এ সময় ফরহাদ মজহার বলেন, ‘আমাকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে। ওরা আমাকে মেরে ফেলবে।’

এর পর তার স্বজনরা আদাবর থানায় এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করলে অনুসন্ধানে নামে পুলিশ।

টানা ১৮ ঘণ্টা ‘নিখোঁজ’ রহস্যের পর ওই দিন রাতেই ফরহাদ মজহারকে যশোরের নোয়াপাড়া থেকে উদ্ধার করে র‌্যাব। ওই সময় তিনি হানিফ পরিবহনের একটি বাসে খুলনা থেকে ঢাকা যাচ্ছিলেন।

ফরহাদ মজহার নিখোঁজ বিষয়ে তার স্ত্রীর করা জিডি মামলা আকারে নেয়া হয়। এতে ভিকটিম হিসেবে ফরহাদ মজহার আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। জবানবন্দি শেষে নিজ জিম্মায় বাসায় ফেরার অনুমতি চাইলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

রবি