প্রাডো গাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া চিতা ও সিংহ শাবক গাজীপুর সাফারি পার্কে

মোশারফ হোসাইন তযু, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি- যশোর থেকে সোমবার উদ্ধার হওয়া দুটি সিংহ শাবক ও দুটি চিতাবাঘের বাচ্চা এখন গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে আনা হয়েছে।

পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেন জানান, মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে বাচ্চাগুলোকে পার্কে এনে তাদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

যশোরের চাঁচড়া চেকপোস্টে সোমবার একটি প্রাডো গাড়িতে করে পাচারকালে পুলিশ দুটি কাঠের বাক্সের মধ্যে লুকিয়ে রাখা বাচ্চাগুলো উদ্ধারসহ ২জনকে আটক করে। সেখান থেকে বাচ্চাগুলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে পাঠানো হয়।

পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.মোতালেব হোসেন সময়ের কন্ঠস্বরকে জানান, এ নিয়ে তাদের পার্কে সিংহ হল ২১টি। আর চিতাবাঘ হিসেবে এই দুটি বাচ্চাই প্রথম। এছাড়া এ পার্কে ১১টি রয়েল বেঙ্গল টাইগার রয়েছে। “সিংহশাবক দুটির বয়স আড়াই থেকে তিন মাস। আর চিতার বাচ্চার বয়স দেড় মাস। তাদের ফিডার দিয়ে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে। পার্কের দুটি ঘরে তাদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।” বাচ্চাগুলোকে কয়েক দিন ঠিকমতো খাবার না দেওয়ায় তারা দুর্বল বলে জানিয়েছেন পার্কের চিকিৎসক নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

পশু পাচার সম্পর্কে যশোরের চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সৈয়দ মো. বায়েজিদ সাংবাদিকদের বলেছেন, পাচারের সময় গাড়ি থেকে আটক আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

“তারা ঢাকার উত্তরার ফায়েদাবাদ এলাকার জসিমউদ্দিনের কাছ থেকে শাবকগুলো নিয়ে যশোরের শার্শা উপজেলার সামটা গ্রামের ইদ্রিস আলীর কাছে পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন।”

বাচ্চাগুলো কোথা থেকে আনা হয়েছে এ বিষয়ে তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার যশোরের আদালতে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি