ছাতকে হানাদার মুক্ত দিবসে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

হাবিবুর রহমান নাসির,ছাতক(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি: ছাতকে হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে আনন্দ র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার ৬ডিসেম্বর সকালে র‌্যালী শেষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রশাসক মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খানের সভাপতিত্বে ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার গোলাম মোস্তফার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সহকারী কমিশিনার(ভুমি) সোনিয়া সুলতানা, ছাতক পৌরসভার প্রতিষ্ঠাকালীন চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ আহমদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবুসাদাত লাহিন, সাবেক কমান্ডার নুরুল আমিন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, সমবায় কর্মকর্তা বিজিত রঞ্জর কর, বিআরডিবি কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল আবেদীন আবুল।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সাবেক কমান্ডার আনোয়ার রহমান তোতা মিয়া। বক্তব্য রাখেন, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আলী, পৌর কমান্ডার অজয় ঘোষ, মুক্তিযোদ্ধা কবির উদ্দিন লালা, জিতু মিয়া, মকবুল আলী, গিয়াস উদ্দিন, রজব উদ্দিন, আজাদ মিয়া, সুনামগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি বাবুল রায়, আওয়ামীলীগ নেতা সাব্বির আহমদ প্রমুখ।

সভাশেষে কালীবাড়ি রোডে নতুন সংযোজন সিসি ক্যামেরার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন, সাকির হোসেন ও গীতা পাঠ করেন, সমবায় কর্মকর্তা বিজিত রঞ্জর কর।

এর আগে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি আনন্দ র‌্যালী শহর প্রদক্ষিণ করে। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আলহাজ্ব আব্দুস সামাদের নেতৃত্বে শহরে মুক্তিযোদ্ধাদের পৃথক আনন্দ র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। র‌্যালী শেষে শহীদ মিনার সংলগ্ন অফিসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব পিয়ারা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক কমান্ডার আলহাজ আব্দুস সামাদ, মুক্তিযোদ্ধা কুতুব আলী মেম্বার, কমান্ডার আব্দুর রউফ, আব্দুল আহাদ, হুশিয়ার আলী, হেকিম আলী, ফজর উদ্দিন, আজির উদ্দিন কাঁচা, কিরণ দাস, আব্দুল খালিক, আব্দুস সালাম, ফজলুল করিম, মীরেন্দ্র কুমার দাস, আলতাব আলী, আখলুছ আলী, ইউছুফ আলী, আব্দুল কাদির পাখি, আয়াত উল্লাহ, লালু শাহ, আব্দুন নূর, আক্রম আলী, তোতা মিয়া, কেতকী রঞ্জন চৌধুরী, মাস্টার আব্দুল আহাদ, চেরাগ আলী, সুরুক মিয়া, মখদ্দুছ আলী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সাহাব উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, সাহেব আলী সাজু, শাহজাহান, শাহ সৈয়দ আলম রবিন, ছালেক মিয়া প্রমূখ।