রাঙামাটিতে আ.লীগ নেত্রীকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

রাঙামাটি প্রতিনিধি- রাঙামাটিতে মুখোশ পড়া একদল দুর্বৃত্ত জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ঝর্ণা খীসাকে কুপিয়ে জখম করেছে। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার স্বামী ও ছেলেও আঘাত করে। পরে ঝর্ণা খীসাকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বুধবার রাত দেড়টার দিকে শহরের বিজয় নগরের ভালেদি আদামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাঙ্গামাটি শহরের বিজয় নগর এলাকায় একদল মুখোশধারী সন্ত্রাসী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ঝর্ণা খীসাসহ তার স্বামী ও ছেলেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় ঝর্ণা খীসাকে রাঙ্গামাটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঝর্ণার পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, গভীর রাতে ১০/১৫জনের একদল মুখোশধারী জোরপূর্বক ঘরে ঢুকে তাদের এলোপাতাড়ি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপাতে থাকে। এ সময় ঝর্ণা খীসা, স্বামী জিতেন্দ্র লাল চাকমা ও ছেলে রণবিষ্ণ চাকমা আহত হয়। এদের মধ্যে ঝর্ণা খীসার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এদিকে রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও যুবলীগের সহ সভাপতি অরবিন্দু চাকমার হত্যার প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে রাঙামাটিতে বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এ হরতালে রাঙামাটি শহরের অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লা রুটে সকল ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। শহরের অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। হরতাল চলাকালে অফিসগামী ও শিক্ষার্থীদের হেটে গন্তব্যস্থলে পৌছতে দেখা গেছে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি