কমছেই না পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম

রাজু আহমেদ, স্টাফ রিপোর্টার- রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন কাঁচা বাজারের বিক্রেতারা ফুরফুরে মেজাজে থাকলেও ক্রেতাদের ভেতরে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

গত কয়েক সপ্তাহ যেন লাগামহীন হয়ে যাচ্ছে পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচের দাম। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে সাধারন ভোক্তাদের উপর। ক্রেতাদের দাবী, বাজারে এসব কাঁচামালের কোন ঘাটতি নেই-তবুও মূল্য অনেকেরই ক্রয় সামর্থের বাইরে।

সরেজমিনে মিরপুর, মোহাম্মদপুর, কাওরান বাজার ঘুরে কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের কোনো সংকট দেখা না গেলেও বাজারে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ খুচরা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকায়। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা থেকে ১৫০ টাকায়।

মিরপুর কাঁচাবাজারে পিয়াজ ও কাঁচা মরিচসহ খুচরা কাঁচামাল বিক্রেতা এক ব্যাক্তি জানান, বর্তমানে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ খুচরা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকায়। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা থেকে ১৫০ টাকায়। গত সপ্তাহে কাঁচা মরিচ খুচরা বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা থেকে ১৩০ টাকা। পিয়াজ ৮০ টাকা থেকে ৯০ টাকা প্রতি কেজি।

চলতি সপ্তাহের শুরুতেই প্রতি কেজিতে কাঁচা মরিচের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ১৫ টাকা থেকে ২০ টাকা। ২ মাস আগে কাঁচা মরিচ খুচরা বিক্রি হয়েছে ৬০ টাকা থেকে ৭০ টাকা। পেঁয়াজের দাম ছিল ৪০ টাকা থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত।

কাওরান বাজারের একজন পেঁয়াজের আড়ৎদার জানান, বাজারে আমরা প্রতি মন পেঁয়াজ ৩ হাজার ২ শত টাকা থেকে ৩ হাজার ৬ শত টাকা পর্যন্ত কিনেছি। আমাদেরও তো একটু লভ্যাংশের দরকার আছে।

বাজার করতে আসা আছিয়া নামে এক সাধারন ক্রেতা তার হতাশার কথা বলতে গিয়ে বলেন, আমাদের মত নিন্ম-মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষেরই যত সমস্যা, বাজার করার জন্য যে টাকা ধার্য্য থাকে তার পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচ কিনতেই শেষ হয়ে যায়। খুব তাড়াতাড়ি পেঁয়াজের দাম কমানোর দাবি সাধারন ক্রেতাদের।

এভাবে দফায় দফায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির কারনে সাধারন ক্রেতাদের পরিস্থিতি হতাশা জনক। সাধারন মানুষের অনুরোধ সরকার যেন দ্রুত কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রনে এনে সাধারন মানুষের ক্রয় ক্ষমতার ভেতরে রাখে।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি