মাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!

কামাল হোসেন, শিবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে দূর্বৃত্তরা একটি পুকুরে বিষ দিয়ে প্রায় ১০ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে।

উপজেলার দাইপুকুরিয়া ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ভূক্তভোগী সাজেমান আলী বাদি হয়ে রোববার রাতে শিবগঞ্জ থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন।

সাধারণ ডায়েরীতে বলা হয়েছে- উপজেলার গাজীপুর গ্রামের মৃত ইলিয়াস উদ্দিনের ছেলে সাজেমান আলীসহ ৫ জন যুবক মিলে ওই এলাকায় ১২ বিঘা একটি পুকুরের মধ্যে চার মাস আগে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করা শুরু করে। মাছগুলো কিছুদিন পরেই তারা বিক্রি করত। কিন্তু রোববার রাতে কে বা কারা পুকুরগুলোতে বিষ প্রয়োগ করে মাছগুলো মেরে ফেলে। সকালে সব মাছ মরে ভেসে ওঠে।

এদিকে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা বরুন কুমার মন্ডল জানান, ধারণা করা হচ্ছে মাছগুলো বিষ প্রয়োগের মাধ্যমে হত্যা করা হয়েছে। মরা মাছগুলো পুকুর মরে ভেসে উঠেছে। মাছগুলোর মধ্যে সিলবার, রুই, কাতল, সরপুটি, তেলাপিয়া, বাটা ও মৃগেলসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ রয়েছে।

অপরদিকে মৎস্য ব্যবসায়ী সাজেমান আলী বলেন, ‘এত বড় সর্বনাশ কে করল আল্লাহই জানেন। জীবনের মতো আমরা পথে বসে গেলাম।’ এলাকার শতাধিক দরিদ্র সদস্য মাছ চাষের সঙ্গে জড়িত। এক সপ্তাহ পর মাছগুলো বিক্রি করলে সব টাকা উঠে আসত। শত্রুতাবশত কেউ এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করেন তিনি। এ পর্যন্ত তাদের হিসাব অনুযায়ী দূর্বৃত্তরা দেড়শ’ মণ মাছ অনুমানিক ১০ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে।

অন্যদিকে সাধারণ ডায়েরী (জিডি) পেয়ে এএসআই গোলাম মওলা জানান, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। কে জড়িত তা তদন্তে প্রমাণিত হবে। তিনি আরো জানান, বিষের গন্ধে আশ-পাশের কোন মানুষ থাকতে পারছে না।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি