ফেনীর সেই ত্রিপল মার্ডারের রিপোর্ট: মা ও দুই শিশু হত্যায় ৩য় পক্ষ জড়িত

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন,স্টাফ রিপোর্টার: ফেনীর আলোচিত প্রবাসী স্ত্রী গৃহবধূসহ দুই শিশু হত্যায় জড়িত রয়েছে তৃত্বীয় পক্ষ । মঙ্গল বার বিকালে সিআইডি পুলিশ সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। অপর দিকে ঘটনার এক বছর পর আলোচিত ত্রিপল মার্ডার মামলা সিআইডিতে হস্তান্তর পুলিশ ।

ফেনী সিআইডির উপ-পরিদর্শক ( সাব ইনিসপেক্টর) ও মামলার তদন্ত আইও তারেক মাহম্মুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান। নিহতদের ময়না তদন্ত ও ফরেনসিক বিভাগের বিষেরা রিপোর্ট অনুযায়ী প্রমানিত হয়েছে গত ২০১৬ সালে ১২ ডিসেম্বর ফেনীর পশ্চিম উকিল পাড়ার আবদুর রউপ ভূঞা নিবাসে প্রবাসী গৃহবধূ মর্জিনা আক্তার মুক্তা ( ২৭) শিশু পুত্র মহিন মাহমুদ (৩) ও মেয়ে তাসলিম মাহমুদ মাহি (৮) হত্যায় জড়িত রয়েছে তৃত্বীয় পক্ষের কেউ ।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তারেক মাহম্মুদ আরো জানান, মোবাইল কল লিস্ট ধরে আমরা তদন্ত চালাব। ঘটনার চুলচেরা বিশ্লেষণ করে জড়িত ঘাতক যত শক্তিশালী হউক আমরা তাদের গ্রেপ্তার করব।

মামলার বাদী নিহতের ভাই আনোয়ার হোসেন মাছুম জানান, ঘটনার পর এক বছর অতিবাহিত হলেও পুলিশ কু উদ্ধারে ব্যর্থ । আসামীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দ্রুত শ্বাস্থি দাবী জানাচ্ছি ।

উলেখ্য, ২০১৬ সালের ১২ ডিসেম্বর সোমবার সন্ধ্যা ৭ টায় ফেনী শহরের পশ্চিম উকিল পাড়ায় ইটালী প্রবাসী তারেক আহম্মদের স্ত্রীসহ দুই শিশু সন্তানদের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদির সন্ধ্যায় ময়না তদন্ত শেষে তাদের মরদেহ দাফন করা হয়।