রামগঞ্জে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাতের আধারে মাছ লুট,আটক ৫

মু.ওয়াছীঊদ্দিন,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্বেও মাছিমপুর দীঘি থেকে মাছ লুটের অভিযোগে রামগঞ্জ থানা পুলিশ ৫জেলেকে আটক করেছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে উপজেলার ৫নম্বর চন্ডিপুর ইউনিয়নের মাছিমপুর হাজী বাড়ীর দীঘি থেকে জালসহ জেলেদের আটক করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে ও দীঘির প্রকৃত মালিকগণ জানান, বিগত কয়েক যুগ থেকে আমাদের পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে মালিকানা উক্ত দীঘিতে মাছচাষ করে আসছি। কিন্তু গত কয়েক বছর পূর্বে স্থানীয় প্রভাবশালী ও দূস্কৃতিকারী কয়েকজন ব্যক্তি উক্ত দীঘিতে নিজেদের মালিকানা দাবী করে আমাদের চাষকৃত কয়েক লক্ষ টাকার মাছ লুটে নেয়। এসময় তাদের বাধা দিতে গেলে হামলার ভয় দেখায়।

পরবর্তিতে আদালতে মামলা করলে মহামান্য হাইকোর্ট উভয়পক্ষকে মাছ না ধরার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। আদালতের রায় অমান্য করে আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্বেও জাহাঙ্গীর শেখ, খিজির মেম্বার, সেলিম শেখ, আবদুল হাই, কামাল পন্ডিতের নির্দেশে স্থানীয় জেলেরা মাছ ধরতে গেলে রামগঞ্জ থানা পুলিশে খবর দেয় দীঘির প্রকৃত মালিকগণ। খবর পেয়ে রামগঞ্জ থানার এস আই আবদুল মোমেন ঘটনাস্থল থেকে ৫জেলেকে আটক করলেও নির্দেশদাতা পালিয়ে যায়।

এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য খিজির মিয়ার মোবাইল বন্ধ থাকায় কথা বলা যায়নি। রামগঞ্জ থানা এস আই আবদুল মোমেন জানান, উক্ত দীঘিতে মাছ ধরার ব্যপারে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আদালতের রায় অমান্য করায় ৫জনকে আটক করেছি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মামলা দায়ের করা হবে।