মুসলিম নেতাদের ঘোষণা নেতানিয়াহুর প্রত্যাখ্যান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র স্বীকৃতি দেওয়ায় পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে পূর্ব জেরুজালেমকে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে মুসলিম বিশ্বের নেতারা যে ঘোষণা দিয়েছেন, তা প্রত্যাখ্যান করেছেন বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

বুধবার তুরস্কের ইস্তাম্বুলে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) নেতাদের দেওয়া ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘এসব বিবৃতিতি আমাদের সন্তুষ্ট করতে পারেনি।’ ওআইসির বর্তমান চেয়ার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ান ওআইসির এই জরুরি বৈঠক ডাকেন।

মুসলিম নেতাদের বক্তব্যের জবাবে নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘শেষ পর্যন্ত সত্য জয়ী হবে এবং অনেক দেশই জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেবে এবং তাদের রাজধানী জেরুজালেমে স্থানান্তর করবে।’

এর আগে বুধবার সকালে মুসলিমসংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের নেতারা একযোগে বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ট্রাম্পের স্বীকৃতি সবাই যেন প্রত্যাখ্যান করে।

কয়েক দশকের পররাষ্ট্রনীতি পরিবর্তন করে ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ঘোষণা দেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তেল আবিব থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন তিনি। ট্রাম্পের এ স্বীকৃতিকে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন বলে দাবি করেছে ওআইসি। ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের দখলদারত্ব শেষ করার ব্যবস্থা নিতে জাতিসংঘৈর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ৫৭ মুসলিম দেশের এই সংগঠন।