পাবনার ভাঙ্গুড়ায় কীটনাশক পানে মা-মেয়ের আত্মহত্যা

আব্দুল লতিফ রঞ্জু , পাবনা প্রতিনিধি: পাবনার ভাঙ্গুড়ায় কীটনাশক পান করে মা সাহারা খাতুন (৪৫) ও তার মেয়ে সালমা খাতুন (২০) আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভাঙ্গুড়া উপজেলার পারÑভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের পাথরঘাটা-রোকনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পাথরঘাটা-রোকনপুর গ্রামের দরিদ্র কৃষক আব্দুস সালাম কয়েকমাস পূর্বে তার মেয়ে সালমাকে পার্শ্ববর্তী সাঁথিয়া উপজেলার সিলংদহের জনৈক এক যুবকের সাথে (নাম জানা যায়নি) ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দিয়ে বিয়ে দেন।

কিন্ত স্বামী ও শ্বশুড় বাড়ির লোকজনের সাথে সালমার বনিবনা না হওয়ায় একসপ্তাহ আগে তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়। এ সময় ছেলে পক্ষ সালমার পরিবারকে যৌতুকের ৪০ হাজার টাকা ফেরত দেয়। এই বিষয় নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে সালমা, তার মা সাহেরা ও পিতা আব্দুস সালামের মধ্যে ঝগড়া হয়।

এরই জেরে অভিমান করে দুপুরে মা-মেয়ে দুজনেই কীটনাশক পান করে। পরে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রতিবেশীরা দু’জনকে উদ্ধার করে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভাঙ্গুড়া থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল জানন, মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে।