জেল থেকে পালাতে গিয়ে জীবনের চরম শিক্ষা!

চিত্র বিচিত্র ডেস্ক- অনেক সময়ই জেলের সুড়ঙ্গ কেটে কিংবা পাঁচিল টপকে জেল থেকে কয়েদি পালানোর কথা শোনা যায়। এমনই পরিকল্পনা এঁটেছিলেন চীনের জেলখানার এক কয়েদি। তবে তিনি কোন সুড়ঙ্গ কিংবা পাঁচিল কেটে পালাতে চাননি।

তিনি পরিকল্পনা করেছিলেন লোহার শিকের মধ্য দিয়ে শরীর গলে দিয়ে পালাবেন। তবে এভাবে পালাতে গিয়ে যে এতো বড় মাশুল গুনতে হবে তা বোধহয় কল্পনাও করেননি ঐ কয়েদি কয়েদি।

ঐ যুবক জেলের লোহার শিকের মধ্য দিয়ে শরীর গলে বের হয়ে আসতে চেয়েছিলেন বাইরে। পরিকল্পনা অনুযায়ী জেলের শিকের মধ্য দিয়ে প্রথমে মাথা গলে দেন। বেশ ভালোভাবেই দুই শিঁকের মধ্য দিয়ে মাথা বাইরে বের হয়ে আসে। মাথা বাইরে বের হলেও শরীর বের করতে গিয়েই বাধে গণ্ডগোল। সরু ফাঁক দিয়ে আর বের হয় না শরীর।
এক পর্যায়ে বুঝতে পারে এই বুদ্ধি খুব একটা কাজে আসবে না। এরপর সিদ্ধান্ত নেন এভাবে চেষ্টা না করে জেলের মধ্যে থাকাই শ্রেয়। কিন্তু পুনরায় মাথা ভেতরে ঢুকাতে গিয়েই বাধে বিপত্তি। অনেকক্ষণ চেষ্টা করেও মাথা ভেতরে ঢুকাতে ব্যর্থ হন তিনি। আতঙ্কে চিত্কার শুরু করেন।
শব্দ পেয়ে হাজির হয় পুলিশ। দুই জন পুলিশ অনেকক্ষণ ধরে চেষ্টা করেন লোহার শিক ফাঁক করে আসামির মাথা ভেতরে ঢুকিয়ে দিতে। ঘণ্টাখানেক চেষ্টার পর কোন রকমে মাথাটা ভেতরে নিতে পেরেছেন ঐ আসামি কিন্তু শ্রীঘর যে কি জিনিস তা হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন।-মেট্রো

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি