‘ম্যাচের সেরা’ খেলোয়ার পুরস্কার পেলেন ৫ জিবি ইন্টারনেট!

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- ম্যাচের সেরা হওয়া ‘চাড্ডিখানি’ কথা নয়! দুই দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে ম্যাচের সেরা হওয়া যেন শ্রেষ্ঠত্বের বার্তা বহন করে। পুরস্কার মূল্য যাই হোক না কেন, ক্যামেরার সামনে পোজ দিয়ে দাঁড়িয়ে ‘ম্যান অফ দ্য ম্যাচ’ পুরস্কার গ্রহণ করতে কোন খেলোয়াড়েরই না ভাল লাগে। আইএসএল, আইপিএল কিংবা আইলিগ-এ ম্যাচের সেরা হওয়ার জন্য মুখিয়ে থাকেন প্রত্যেক খেলোয়াড়ই।

যাই হোক, ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় যখন পুরস্কার নেওয়ার মঞ্চে দাঁড়িয়ে দেখেন, তাঁকে দেওয়া হচ্ছে এক পাটি জুতো কিংবা ৫ জিবি ডেটা— তখন কেমন লাগে? বিশ্বের অন্য মহাদেশে যাই হোক না কেন, আফ্রিকায় কিন্তু অন্য নিয়ম!

এখানে ফুটবলারদের সত্যিই ইন্টারনেট খরচ করার ডেটা কিংবা জুতো দেওয়া হয় পুরস্কার হিসেবে। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরেই তোলপাড় পড়ে গিয়েছে বিশ্বজুড়ে। আফ্রিকার ঘানায় যেমন ‘ম্যান অফ দ্য ম্যাচ’-কে দেওয়া হয় একজোড়া জুতো। ফিকরু তেফেরার দেশ বতসোয়ানায় ভাল খেললে পুরস্কার হিসেবে জোটে বালতি ভর্তি গৃহ সরঞ্জাম। জিম্বাবোয়ে-তে দেওয়া হয় বিয়ারের মাগ। ভারতীয় ক্রিকেট দল বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকায় সফররত। সেখানেও অদ্ভুত পুরস্কার দেওয়ার নিয়ম চালু রয়েছে।

ভাইরাল হওয়া সাম্প্রতিক এক ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ম্যাচের সেরা ফুটবলারকে দেওয়া হচ্ছে, ৫ জিবি ডেটা। দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম বড় মোবাইল পরিষেবার সংস্থা টেলকম-এর তরফে মামেলোদি সানডাউনস অধিনায়ক লম্ফ কেকানা-কে দেওয়া হচ্ছে নিখরচায় ৫জিবি ডেটা খরচ করার ‘সুবিধা’।

এমনই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। বিশ্বের অন্য দেশের দিকে তাকানো যাক। মহিলাদের স্কি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য লিন্ডসে ওন-কে একবার দেওয়া হয়েছিল আস্ত এক দুধেল গাই। হরিয়ানা-তেই রাজ্য সরকারের তরফে তিন উঠতি বক্সারকে দেওয়া হয়েছিল বিশালাকৃতি গাভী।

বাহরিন গ্রাঁ পি-তে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর লুইস হ্যামিল্টনকে প্রত্যেক দিন দেওয়া হয়েছিল এক বোতল জল। হ্যামিল্টন শ্যাম্পেন মনে করে সেই জল অবশ্য বিজয়োল্লাসেই ‘খরচ’ করে ফেলেছিলেন।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি