ঘন কুয়াশায় শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে ৭ ঘন্টা ফেরী চলাচল বন্ধ

মোঃ রুবেল ইসলাম তাহমিদ, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি-  প্রতিদিনের মত ঘন কুয়াশার কারণে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে দীর্ঘ ৭ ঘন্টা ফেরী চলাচল বন্ধ ছিল।

শনিবার রাত ৩টা থেকে সকাল ১০ টা পর্যন্ত দেশের সুপরিচিত দক্ষিন বঙ্গের অন্যতম প্রবেশ পথ শিমুলিয়ায় ঘন কুয়াশায় ঢাকা পড়ে গেলে ফেরীসহ সকল নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে।

তাৎক্ষণিকভাবে ঘন কুয়াশার মধ্যে ফুললোড অবস্থায় প্রায় ২শতাধিক যানবাহন ও বিপুল যাত্রীসহ মাঝনদীতে নোঙরে থাকে মোট ৫টি ফেরী। এ সময় একই অবস্থায় শিমুলিয়া ঘাটের পন্টুনে তিনটি ফেরী এবং কাঠালবাড়ি ঘাটে আরো ২টি ফেরী ভেড়ানো থাকে। এ সময় মধ্যনদীতে থাকা ফেরীযাত্রীসহ ফেরীঘাটে আটকে পড়া যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েন।

এদিকে ঘন কুয়াশায় নৌরুটে দীর্ঘ ৭ঘন্টা ফেরী চলাচল বন্ধ থাকায় শনিবার সকালে শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীবাহী প্রাইভেট কার, মাইক্রো ও মালবাহী ট্রাকসহ প্রায় ২ হাজার যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় থাকতে হয়। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বেলা ১০টায় শিমুলিয়া ঘাটে প্রায় ২ হাজার ছোট বড় ও পণ্যবাহী ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় ছিল বলে জানা যায়।

মাওয়া বিআইডব্লিউটিসির ডিজিএম (বাণিজ্য) মোঃ খালিদ নেওয়াজ জানান, রাত ৩টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত নৌরুটের পদ্মা অববাহিকার বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। এ সময় ফেরী চালকেরা নৌরুটের ১ ফুট অদূরেও দিক-মার্কা ও সিগন্যাল বীকন বাতি নির্ণয় করতে পারছিল না। তাই দুর্ঘটনা এড়াতে বাধ্য হয়ে ফেরী চালকেরা নৌরুটে ফেরী চলাচল বন্ধ রাখে। এতে করে সকালের দিকে শিমুলিয়া ঘাটে যানবাহনের চাপ দেখা দেয়।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি