বাবার বিয়ে আটকাতে দুই বোনের কাণ্ড!

চিত্র বিচিত্র ডেস্কঃ

ছোট ছেলে মারা যাওয়ার পর আবার পুত্রসন্তান লাভের আশায় নিজের স্ত্রীকে ছেড়ে দ্বিতীয় বিয়ের পরিকল্পনা করেছিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু সেই বিয়ে আটকাতে তার দুই মেয়ে যা করলেন, তা সত্যি অভিনব।

দিনকয়েক আগে ভারতের রাজস্থানের ভারতপুরের সরকারি হাসপাতাল থেকে একটি শিশুপুত্র চুরি যায়। তদন্তে নেমে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে দুই মহিলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের নাম শিবানী দেবী ও প্রিয়াঙ্কা দেবী। কিন্তু শিশুচুরির কারণ জানাতে গিয়ে তাঁরা যা বলেন তা শুনেই তাজ্জব বনে যান তদন্তকারীরা।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, কয়েকদিন আগে ওই মহিলাদের ছোট ভাই মারা যায়। এরপরেই তাদের বাবা দ্বিতীয় বিয়ের পরিকল্পনা করেন। সেই ঘটনার জেরে তাদের মা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। এর পরেই শিশুচুরির ফন্দি আটে দুই বোন। তাদের আশা ছিল নতুন শিশু নিয়ে গেলে হয়ত তাদের বাবা আর বিয়ে করবেন না।

আটক দুই মহিলাই বিবাহিত বলে জানা গেছে। দুই বোনের মধ্যে বড় বোন শিবানী দেবী একটি স্কুলের শিক্ষিকা। অন্য বোন প্রিয়াঙ্কা স্থানীয় একটি আর্টস কলেজের ছাত্রী।

পুলিশি তদন্তে তারা জানিয়েছেন, প্রথমে একটি শিশু দত্তক নেওয়ার কথাও ভেবেছিলেন। কিন্তু জানাজানি হওয়ার ভয়ে সেই পরিকল্পনা থেকে পিছিয়ে আসেন তারা। তবে বাবার বিয়ে আটকাতে ওই দুই মহিলা যে এমন কাণ্ড ঘটিয়ে বসবেন, ভাবতে অবাক লাগছে তদন্তকারীদেরও।