আতশবাজি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লির বাওয়ানা শিল্পাঞ্চলে শনিবার সন্ধ্যায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ১০ নারীসহ ১৭ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

দেশটির দমকল বাহিনী জানিয়েছে, আতশবাজির কারখানায় ওই অগ্নিকাণ্ডে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ডের সময় ভেতরে ৩০ জন শ্রমিক ছিলেন। সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে আগুন লাগলে তারা আটকা পড়েন। ভবনটিতে একটি মাত্র দরজা রয়েছে। কিন্তু ভবনটির বেজমেন্টসহ তিনটি ফ্লোরে আতশবাজি দিয়ে ভরা ছিল।

দমকল বাহিনীর প্রধান অতুল গার্গ বলেন, বেজমেন্টে একটি ও নিচতলায় তিনটি মৃতদেহ পাওয়া গেছে। আর বাকি ১৩টি মৃতদেহ প্রথম তলায় পাওয়া গেছে। তিনি জানাচ্ছেন, ওই ব্যক্তিদের মৃতদেহগুলো পাশাপাশি বসা বা শোয়া অবস্থায় পড়েছিল। পরে মৃতদেহগুলো বাবা সাহেব আমবেদকার হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। আর আহত দুই ব্যক্তিকে মহর্ষি বাল্মিকী হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

গার্গ বলেন, আগুনটির ক্যাটাগরি ছিল চার অর্থাৎ এটা খুব বড় ছিল না। কিন্তু ভবনের ভেতর বিস্ফোরণের কারণে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। দমকল বাহিনীর ১৫টি ইউনিট ও পঞ্চাশজন জরুরি কর্মী প্রায় তিন ঘণ্টায় চেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালের মে মাসের পর এটিই দিল্লির সবচেয়ে ভয়াবহতম শিল্প কারখানা ট্রাজেডি বলা হচ্ছে। তখন লাল কুয়ান কেমিক্যাল মার্কেট কমপ্লেক্সে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৫৭ জন নিহত হন।