চলতি বছর সৌদি আরবে হজযাত্রীদের পাঠানোর প্রস্তুতি জানিয়ে ধর্মমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা-

চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে সৌদি আরব যেতে পারবেন। এদের মধ্যে সরকারিভাবে যেতে পারবেন ৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারিভাবে যেতে পারবেন ১ লাখ ২০ হাজার।

রবিবার সচিবালয়ে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ‘১৪ জানুয়ারি সৌদি আরবের মক্কায় এ-সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়েছে। চুক্তি অনুসারে, এবার বাংলাদেশ থেকে মোট এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে পারবেন। এর মধ্যে, সরকারিভাবে সাত হাজার ১৯৮ জন আর বেসরকারিভাবে এক লাখ ২০ হাজার হজে যেতে পারবেন।’

চুক্তিতে বাংলাদেশের পক্ষে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এবং সৌদি সরকারের পক্ষে সেদেশের ধর্মমন্ত্রী ডক্টর মোহাম্মদ সালেহ বিন তাহের বেনতেন সই করেন।

এছাড়া অন্য বছরের মতো এবারও মোট শতকরা ৫০ ভাগ হজযাত্রী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিডেট এবং শতকরা ৫০ ভাগ সাউদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স বহন করবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান ধর্মমন্ত্রী।

এবারের হজের জন্য ইতোমধ্যে মুসল্লিরা প্রাক-নিবন্ধন করেছেন। মন্ত্রণালয় হজ প্যাকেজ ঘোষণা করার পর চূড়ান্ত নিবন্ধন করবেন হজে যেতে ইচ্ছুকরা।

মতিউর রহমান জানান, ‘সৌদি আরব সরকার সম্প্রতি সে দেশের নাগরিকদের ওপর পাঁচ ভাগ ভ্যাট আরোপ করেছে। তা হজযাত্রীদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য করতে চায় সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে এ নিয়ে বাংলাদেশ সরকার আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে, যেন বাংলাদেশি হজযাত্রীরা এ ভ্যাটের আওতামুক্ত থাকেন’।

এক প্রশ্নের জবাবে ধর্মমন্ত্রী বলেন, গত বছর যেসব হজ এজেন্সি অনিয়ম করেছে, যাদের মাধ্যমে হজে গিয়ে বাংলাদেশিরা ফিরে আসেননি, চুক্তি অনুযায়ী সেবা দেয়নি এবং চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করেছে, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত অব্যাহত আছে।